বর্ণাঢ্য আয়োজনে মে দিবস পালিত

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১১:১৮ পিএম, ০১ মে ২০১৯

লাল ঝাণ্ডা হাতে মিছিল, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, রঙিন ব্যানার, ফেস্টুন আর প্ল্যাকার্ড হাতে অধিকারের স্লোগান এবং আলোচনা, সেমিনার সিম্পোজিয়ামের মধ্যে দিয়ে সারাদেশে পালিত হলো মহান মে দিবস। ‘শ্রমিক মালিক ঐক্য গড়ি, উন্নয়নের শপথ করি’ এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে পালন করা হয় দিবসটিকে।

দিবসটি পালন উপলক্ষে সরকারি বিভিন্ন দফতরসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলো নানা কর্মসূচি গ্রহণ করে। আজ ঢাকার জাতীয় প্রেসকাব, সেগুনবাগিচা, তোপখানা রোড, নয়াপল্টন, পুরানা পল্টন মোড়, জিপিও, বঙ্গবন্ধু এভিনিউ, গুলিস্থান ও মতিঝিল এলাকা ছিল লাল ঝাণ্ডা হাতে শ্রমিকদের দখলে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে তারা পালন করে মে দিবস।

দিবসটিকে সামনে রেখে সকাল থেকেই রাজপথে নেমে আসে শ্রমিকরা। তারা শুধু রাজপথে মিছিল সমাবেশ করেনি। ব্যান্ড পার্টির বাদ্যের তালে তালে নেচে গেয়ে অধিকার আদায়ের গান ও নাটক পরিবেশন করেছে। শ্রমিকরা দাবি দাওয়ার সঙ্গে বিপুল উৎসাহ আর উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে দিনটি অতিবাহিত করেছে।

১ মে বিশ্বের শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের দিন। ১৮৮৬ সালের এই দিনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটের শ্রমিকরা ৮ ঘণ্টা কাজের দাবিতে জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। ওইদিন তাদের আত্মদানের মধ্যদিয়ে শ্রমিক শ্রেণির অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

বিভিন্ন সমাবেশে থেকে শ্রমিকদের দাবি ছিল, পোশাক শ্রমিকদের জন্য ঘোষিত নূন্যতম মজুরি শতভাগ নিশ্চিত করা, নারী শ্রমিকদের মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস চালু, নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ, শ্রমিকদের নিরাপদ কর্মস্থল নিশ্চিত করা।

মহান মে দিবস উপলক্ষে শ্রম মন্ত্রণালয় বর্ণাঢ্য এক শোভাযাত্রার আয়োজন করে। সকাল ৭টার দিকে দৈনিক বাংলা মোড়ে অবস্থিত শ্রম ভবনের সামনে থেকে র‌্যালিটি শুরু হয়। এটি উদ্বোধন করেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান।

র‌্যালিটি দৈনিক বাংলার মোড় থেকে হয়ে রাজউক এভিনিউ, বঙ্গবন্ধু এভিনিউ, জিরোপয়েন্ট এবং বাংলাদেশ সচিবালয়ের সামনে দিয়ে জাতীয় প্রেসকাবের সামনে এসে শেষ হয়।

এর আগে জাতীয় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব উম্মুল হাছনার সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সাবেক নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান এমপি, শ্রম অধিদফতরের মহাপরিচালক এ কে এম মিজানুর রহমান, আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদ, শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি ফজলুল হক মন্টু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মহান মে দিবস উপলক্ষে শ্রমিকদের দাবি ও অধিকার আদায়ের দাবিতে মুখরিত হয়ে ওঠে জাতীয় প্রেসকাব প্রাঙ্গণ। আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেসকাবের সামনে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন মিছিল, র‌্যালি, মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করে।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়েরর সামনে শ্রমিক সমাবেশের আয়োজন করে জাতীয় শ্রমিক লীগ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন। মে দিবস উপলে পুরানা পল্টন মোড়ে জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন এক সমাবেশের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ফেডারেশনের সভাপতি আমিরুল হক আমিন।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে রাজধানীর পুরাতন পল্টন মোড়ে সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজ-বিলস। বিলস’র উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য মেসবাহউদ্দীন আহমেদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য শাকিল আক্তার চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও ঢাকা মহানগরীর প্রাইভেটকার ও ট্যাক্সি ক্যাব ড্রাইভার্স ইউনিয়ন, জাতীয় গার্হস্থ্য নারী শ্রমিক ইউনিয়ন, দি সিটি ব্যাংক কর্মচারী পরিষদ, আওয়ামী মোটরচালক লীগ, শ্রমিক নিরাপত্তা ফোরাম, রেডিমেট গার্মেন্টস ওয়ার্কাস ফেডারেশন, জাগো বাংলাদেশ শিশু কিশোর ফেডারেশন, বাংলাদেশ ট্রাস্ট গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশন, শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ (স্কপ), বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন ফেডারেশন, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন, কারিতাস সেফ প্রকল্প, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ, গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নেটওয়ার্ক, ওয়্যারবী ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন সংগঠন নিজ নিজ ব্যানারে দিবসটি উপলক্ষে সমাবেশ ও র‌্যালির আয়োজন করে।

বুধবার দুপুরে ঢাকায় ডাক অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ে মহান মে দিবস উপলক্ষে ডাক অধিদফতর প্রকাশিত স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোস্তাফা জব্বার। অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এবং ডাক বিভাগের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র বক্তব্য রাখেন। মন্ত্রী মহান মে দিবস ২০১৯ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ ডাক অধিদফথর প্রকাশিত ১০ টাকা মূল্যমানের একটি বিশেষ খাম অবমুক্ত করেন। এই বিষয়ে একটি বিশেষ সিলমোহর ব্যবহার করা হয়েছে।

বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

এফএইচএস/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :