প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১৮ এএম, ২০ জুলাই ২০১৯

বাংলাদেশের নারী প্রিয়া সাহা সংখ্যালঘুদের নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে করা অভিযোগকে চক্রান্ত বা উদ্দেশ্যমূলক বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

প্রিয়া সাহার অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ ধরনের ঘটনা বাংলাদেশের মানুষ বিশ্বাস করবে না এবং করেও না। কারণটা হলো, আমাদের এটা অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ, আমাদের প্রধানমন্ত্রীর কঠোর পরিশ্রমের ফলে আমরা অর্জন করেছি, যেটা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল।’

মন্ত্রী বলেন, যে মহিলাটি বলছেন, ওই মহিলাটি তো কোনো দিন আমাদের কাছে দুঃখের কথা বলেননি। আমাদের পুলিশ প্রশাসন অত্যন্ত সজাগ দৃষ্টিতে থাকে, যাতে কোনো রকম সংখ্যালঘুরা কোনো জায়গায় অত্যাচারিত না হয়। এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে বলে আমার জানা নেই।

আসাদুজ্জামান খান আরও বলেন, ‘এইটা নিশ্চয়ই কোনো চক্রান্ত কিংবা উদ্দেশ্যমূলকভাবে তিনি এটা করেছেন, আমি বিশ্বাস করি। তাকে এখনও বলবো, এ ধরনের কোনো ঘটনা যদি ঘটে থাকে তাহলে যেন আমাদের সাথে যোগাযোগ করে। আমরা এ ধরনের কোনো ঘটনার সত্যতা এখন পর্যন্ত খুঁজে পাইনি।’

গত ১৬ জুলাই ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার ২৭ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ১৬ দেশের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহাও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতা প্রিয়া সাহা মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। বাংলাদেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছে। আমরা আমাদের বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছে, তারা আমাদের ভূমি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো বিচার পাইনি।’

ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগের ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। দেশের বিরুদ্ধে এমন মিথ্যাচারের ভিডিও ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি করেছে।

আরএমএম/আরএস/এমকেএইচ