সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৪৮ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

সরকারি অর্থ আত্মসাৎসহ অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানির সাবেক স্বতন্ত্র পরিচালক, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল কবির ওরফে ইমনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সরকারি অর্থ আত্মসাৎসহ এনামুল কবিরের বিরুদ্ধে বিপুল পরিমাণ অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের অনুসন্ধান করছে দুদক।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন দুদকের উপ-পরিচালক নুরুল হুদা। দুদকের জনসংযোগ দফতর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে গত ৬ জানুয়ারি দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে তাকে দুদকে হাজির হতে নোটিশ দেয়া হয়। চিঠিতে তার বিরুদ্ধে তদবির বাণিজ্য ও সরকারি অর্থ আত্মসাৎসহ বিভিন্ন অভিযোগের সুষ্ঠু অনুসন্ধানের স্বার্থে বক্তব্য নেয়া প্রয়োজন। দুদকে হাজিরের সময় তাকে নিজের, স্ত্রী, পুত্র ও কন্যাসহ তার ওপর নির্ভরশীল ব্যক্তিদের জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টের (যদি থাকে) ফটোকপি সঙ্গে আনতে বলা হয়।

দুপুরে এনামুল কবির বলেন, ‘আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের অর্জিত সুনাম ও ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য একটি মহল দুদকে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। আমার বাবা সুনামগঞ্জের এমপি ছিলেন। তার সুনাম রয়েছে। তার ছেলে হিসেবে আমিও সততার সঙ্গে রাজনীতি করছি। বিএনপি, জামায়াত ও জাতীয় পার্টির রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। আমি জানি, দুদকের অনুসন্ধানে সত্য বেরিয়ে আসবে।’

এফএইচ/এএইচ/এমকেএইচ