উত্তরায় শ্রমিকলীগ নেতার হোটেলে চলতো ক্যাসিনো-দেহ ব্যবসা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৩ পিএম, ২৯ মার্চ ২০২১

রাজধানীর উত্তরায় শ্রমিক লীগের ঢাকা মহানগর উত্তরের সহ-সভাপতি মাজেদ খানের মালিকানাধীন ‘রিভার ওয়েভ’ হোটেলে অভিযান চালিয়ে ক্যাসিনোর সরঞ্জমাদি, মদ ও দেহ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত অন্তত ৩১ জনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

রোববার (২৯ মার্চ) রাত ১০টা থেকে শেষরাত পর্যন্ত এ অভিযান চলে। র‍্যাব জানিয়েছে, হোটেলটির আটতলায় ছিল ক্যাসিনো। এখানেই নারীদের দিয়ে দেহ ব্যবসা চালানো হতো।

সোমবার (২৯ মার্চ) র‌্যাব-৪ এর উপ-অধিনায়ক মেজর কামরুল ইসলাম জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘রোববার রাতে রাজধানীর উত্তরার ১০ নম্বর সেক্টরে রিভার ওয়েব নামের একটি আবাসিক হোটেলে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানকালে দেখা যায়, সেখানে কয়েকজন নারী রয়েছেন, যারা দেহ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তিন হাজার থেকে শুরু করে বিভিন্ন মোটা অঙ্কের বিনিময়ে চলতো এসব দেহ ব্যবসা।’ 

মেজর কামরুল ইসলাম বলেন, ‘গত কয়েক বছরে র‍্যাবের অভিযানে বড় বড় ক্যাসিনো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মাজেদ তার আবাসিক হোটেলের আড়ালে চালাত অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসা। আটতলা হোটেলটির দ্বিতীয় তলায় রয়েছে রেস্টুরেন্ট। অনেকে রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে হোটেলবয়রা ক্যাসিনো খেলার জন্য অনুরোধ করেন। এরপর অনেকেই লোভের বশে ক্যাসিনো খেলা শুরু করে একপর্যায়ে নিঃস্ব হয়ে যান।’

তিনি বলেন, ‘হোটেলটির মালিক মাজেদ মিয়া। তবে তার কোনো রাজনৈতিক পরিচয় আছে কি-না তা আমরা জানিনা। অভিযানের সময় মাজেদের ছেলে ইমন পালিয়ে যান। তবে হোটেলটির ডিজিএম/সিইও পদে থাকা মাজেদের খালাতো ভাইকে আমরা আটক করেছি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে অনেক তথ্য পাওয়া যাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সেখানে জুয়া খেলার জন্য ওয়ান-টেন বোর্ড ব্যবহার করা হতো। বোর্ডের চারপাশে বিভিন্ন সংখ্যা দেয়া থাকে ও বোর্ডটি দেয়ালে লাগানো থাকে। খেলা নিয়ন্ত্রণের জন্য হোটেলে কর্মরত থাকে চার থেকে ছয়জন আর মালিকপক্ষের একজন উপস্থিত থাকেন।’ 

আটকের বিষয়ে র‍্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘রাতে ওই হোটেল থেকে ৩১ জনের মতো নারী-পুরুষকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। আটককৃতদের প্রকৃত সংখ্যা পরে জানানো হবে।’

টিটি/ইএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]