‘ভালো নেতার চেয়ে দক্ষ নেতা ব্যবসার জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৯ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২১

ভালো নেতার চেয়ে দক্ষ নেতা ব্যবসার জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেছেন অনলাইন ভিত্তিক এক কর্মশালার বক্তারা।

রোববার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির যৌথ উদ্যোগে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনটির সদস্যদের ব্যবসা সফলতার কৌশল সম্পর্কে সম্যক ধারণা দিতে ‘লিডারশিপ স্ট্রেটেজিস ফর বিজনেস এক্সসিলেন্স’ শীর্ষক এই প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করে।

কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিসিএস সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর। তিনি বলেন, লকডাউনের সময়কে কাজে লাগাতে আমাদের এই ধারাবাহিক প্রশিক্ষণ কর্মসূচি নিয়মিত থাকবে। গত বছর লকডাউনের সময় থেকে আমরা ভার্চুয়াল প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আয়োজন শুরু করি। বিসিএস সদস্যদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে কর্মশালাগুলো সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। ব্যবসায় সফলতার জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত এবং তা বাস্তবায়ন করার পথ দেখানোর জন্য নেতৃত্বের বিকল্প নেই। ব্যবসা সফলতায় কি ধরনের নেতৃত্ব থাকা উচিৎ এ সম্পর্কে সঠিক ধারণা দিতে আজকের কর্মশালা। আইসিটি ব্যবসায়ীরা এই প্রশিক্ষণ কর্মশালার মাধ্যমে নিজেদের সমৃদ্ধ করতে পারবেন বলে আমি আশাবাদী।

কর্মশালায় আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব এবং বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল (বিপিসি)-এর কো-অর্ডিনেটর মো. আব্দুর রহিম খান।

তিনি বলেন, করোনাকালীন আজকের অনলাইন কর্মশালায় আপনাদের উপস্থিতি আমাদের উৎসাহিত করেছে। বিসিএস-এর এই আয়োজনকে বিপিসি সাধুবাদ জানাচ্ছে। পাশাপাশি ভবিষ্যতেও বিসিএস আয়োজিত কর্মসূচিতে বিপিসি সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। কোভিড-১৯ থেকে বাঁচতে স্বাস্থ্যবিধি মানার পাশাপাশি অবসর সময়গুলোতে শিক্ষণীয় কর্মশালার মাধ্যমে নিজেদের সমৃদ্ধ করতে আমাদের প্রত্যেকের চেষ্টা করা উচিৎ। নেতৃত্ব ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই গুরুত্বপূর্ণ। আইসিটি ব্যবসায়ীদের জন্য করা এই আয়োজন থেকে আমরা সবাই উপকৃত হবো বলেই আমার বিশ্বাস।

বিসিএস উপদেষ্টা এবং ড্যাফোডিল ফ্যামিলির চেয়ারম্যান মো. সবুর খান বলেন, নেতৃত্ব শেখার অন্যতম স্থান পরিবার। একজন মা কিভাবে পুরো সংসারটা সাজিয়ে রাখেন তা থেকেই নেতৃত্বের গুণাবলী শিক্ষণীয়। পৃথিবী এখন অটোমেশনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। একজন লিডার যে সিস্টেমে তার সহকারীদের খবরা-খবর এবং নজরদারি নিশ্চিত করতে পারবেন সে সিস্টেম ব্যবহারে অভ্যস্ত হতে হবে। নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করতে পারলে সফলতা ব্যবসা থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রেই আসবে।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, ভালো নেতার চেয়ে দক্ষ নেতা ব্যবসার জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তারচেয়েও বড় বিষয় হলো, নেতাকে দূরদর্শী হতে হবে। সামনের পথ দেখিয়ে এগিয়ে যাওয়ার দুঃসাহস থাকতে হবে। সিদ্ধান্ত নেয়ার পাশাপাশি তা বাস্তবায়নের পথ দেখানোও সুনেতৃত্বের অংশ।

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ (আইএসপিএবি)-এর সভাপতি এম.এ. হাকিম বলেন, নেতৃত্ব বা লিডারশিপ জীবনের সবক্ষেত্রে প্রয়োজন। প্রতিটি মানুষ নিজেকে পরিচালনার জন্যও তিনি তার নেতা। সুনেতৃত্বর বিষয়টি পরিবার, ব্যবসা থেকে শুরু করে সবক্ষেত্রেই গুরুত্বপূর্ণ। আইসিটি খাতের জন্য সততা এবং নিজ স্বার্থের চেয়ে সংশ্লিষ্ট খাতের সমৃদ্ধিকে গুরুত্ব দিয়ে সুনেতৃত্ব আমাদের সফলতার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিবে। এমন নেতৃত্ব যুবসমাজে সৃষ্টি করতে আমাদের চেষ্টা করে যেতে হবে।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য) সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন বলেন, দেশে যে কয়েকটি আইসিটি সংগঠন রয়েছে তারা সবাই এক হাতের পাঁচ আঙ্গুলের মতো। বিসিএস, বেসিস, আইএসপিএবি, বাক্য এবং ই-ক্যাব করোনা সময়কে মানুষের জন্য আশীর্বাদরুপে পৌঁছে দিতে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন সবার জন্য উন্মুক্ত প্লাটফর্ম। সবার সহযোগিতায় আমরা কঠিন সময় সহজে পাড়ি দিতে সক্ষম হবো।

উইম্যান অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরাম (উই) এর সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা বলেন, সম্মিলিত শক্তি আমাদের এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে নারীদের শক্তিকে প্রকাশ করতে হবে।

বিসিএস যুগ্ম-মহাসচিব মো. মুজাহিদ আল বেরুনী সুজনের সঞ্চালনায় প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণ কর্মশালা পরিচালনা করেন মাইন্ড মেপার বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান প্রশিক্ষক এজাজুর রহমান।

অনলাইনে প্রায় দুই শতাধিক বিসিএস সদস্য এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণ কর্মসূচিটি বিসিএস এর ফেসবুক পেজে প্রচারিত হয়। এসময় প্রায় দুই হাজার দর্শনার্থী প্রশিক্ষণ কর্মসূচিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপভোগ করেন।

এইচএস/জেডএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]