রানা প্লাজা ধসের আট বছরে শ্রমিক সংগঠনের নানা কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২৩ পিএম, ২৩ এপ্রিল ২০২১
ফাইল ছবি

রানা প্লাজা ধসের আট বছর উপলক্ষে নানা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে একাধিক শ্রমিক সংগঠন। আগামীকাল শনিবার (২৪ এপ্রিল) রানা প্লাজা ট্র্যাজেডির আট বছর পূর্ণ হবে।

দিবসটি উপলক্ষে শ্রমিক হত্যার বিচার, কর্মক্ষেত্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, কর্মক্ষেত্রে মৃত্যুতে আজীবন আয়ের সমান ক্ষতিপূরণের বিধান করার দাবি নিয়ে সকাল নয়টায় জুরাইন কবরস্থান এবং সকাল ১০টায় সাভারে রানা প্লাজা শহীদ স্মৃতি স্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট, গার্মেন্টস শ্রমিক জোট, শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ (স্কপ), গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের (জি-স্কপ) নেতারা।

সংগঠনগুলোর উদ্যোগে আশুলিয়া, কাশিমপুর, নরায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, চট্টগ্রামসহ সব শিল্প শহরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হবে।

সকাল ১০টায় সাভারের রানা প্লাজা স্তম্ভে পুস্তবক অর্পণ ও নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করবে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট।

দিনদিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে গার্মেন্টস শ্রমিক শোক দিবস ঘোষণা করা, রানা প্লাজাসহ ভবনধস-অগ্নিকাণ্ডে শ্রমিক হত্যার জন্য দায়ীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা, শ্রম আইনের অগণতান্ত্রিক সংশোধনী বাতিল করে কর্মস্থলে মৃত্যুতে আজীবন আয়ের সমান ৪৮ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ প্রদানের বিধান করা, কর্মস্থলে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনায় আহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ, চিকিৎসা, পুর্নবাসন ও কাজে ফেরার নিশ্চয়তা বিধান করা, রানা প্লাজা ভবনের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে শ্রমিক কলোনি ও নিহত শ্রমিকদের স্মরণে শহীদ বেদী নির্মাণ করা এবং বাঁশখালীতে গুলি করে ছয়জন শ্রমিক হত্যার বিচারের দাবি নিয়ে সংগঠনগুলো রানা প্লাজা ধ্বসের দিবসটি পালন করবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সাভারে ধসে পড়ে নয়তলা ভবন রানা প্লাজা। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনায় ১ হাজার ১৩৬ জনের মৃত্যু হয়। এটি ছিল দেশের পোশাক শিল্পে ঘটে যাওয়া সবচেয়ে বড় ট্র্যাজেডি।

এসএম/এমআরআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]