চলেন সবাই মিলে রাস্তায় নামি : জাফরুল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫৭ পিএম, ২৭ এপ্রিল ২০২১

দেশবাসীর উদ্দেশে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ‘আমাদের আর সময় নেই। রাস্তায় না নেমে, আন্দোলন না করে এই মাফিয়া রাষ্ট্রের স্থাপনাটাকে শক্ত করে দিচ্ছি। চলেন সবাই মিলে রাস্তায় নামি। সাহস করে রাস্তায় নামতে হবে। দাবি পূরণ না হলে ফিরব না। পরিবর্তন চাই, পরিবর্তন হবেই। এভাবে দেশ চলবে না। কেউ বিচারের বাইরে থাকতে পারবে না। আন্দোলন করা দরকার একটা সুষ্ঠু জীবন-জীবিকার জন্য।’

বাঁশখালীতে শ্রমিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) রাজধানীর ধানমন্ডি গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে আয়োজিত নাগরিক সংবাদ সম্মেলন ও প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ও গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে শ্রমিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা আট সদস্যের অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘বাঁশখালীতে ১৮ বছরের একটি ছেলেকে গুলি করে মেরে ফেলেছে। বিধবা মা তাকে কষ্ট করে মানুষ করেছিলেন। পুলিশ মেরেছে নাকি গুন্ডা বাহিনী গুলি করে মেরেছে, কেউ বলেনি। এমনকি পুলিশও কথা বলতে ভয় পায়।’

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘বন্দুকের গুলি দিয়ে কোনো রাষ্ট্র টিকে থাকতে পারে না। আপনিও পারবেন না। ভালো হয়ে যান। সারা পৃথিবীকে জানানো দরকার আমরা মাফিয়া রাষ্ট্রে আছি।’

‘যারা এই দেশ গড়েছেন, যে কৃষক খাবার জোগান দিয়েছেন, যে শ্রমিক উন্নয়ন দিয়েছেন তারা আজ নির্যাতিত। জনগণ যখন কথা বলতে পারে তখন বোঝা যায় কেমন স্বাধীনতা আছে। ’৭৪ এর দুর্ভিক্ষে তিন লাখ লোক মারা গেছেন। মানুষ তখন না খেয়ে ছিল। আজ মানুষ অনাহারে নেই, তবে অর্ধাহারে আছে’- যোগ করেন জাফরুল্লাহ।

পিডি/ইএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]