রংপুরে বাড়িঘরে আগুন-লুটপাটে সম্পৃক্তরা চিহ্নিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫৫ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২১

রংপুরের পীরগঞ্জে বাড়িঘরে আগুন-লুটপাটের ঘটনায় জড়িতদের তাৎক্ষণিকভাবেই চিহ্নিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেছেন, ইতোমধ্যে ৪৫ জনকে ধরা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের খুব শিগগির বাড়িঘর তৈরি করে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রী।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রংপুরের পীরগঞ্জে (রোববার রাতে) অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার সূত্রপাত একটা টিন-এজের (কিশোর) ছেলে কাবাশরিফ নিয়ে ফেসবুকে একটা পোস্ট দিয়েছে। ইচ্ছায় দিক বা অনিচ্ছায় বা কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে হোক, স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে। এ ধরনের ঘটনায় সবাই কষ্ট পেয়েছে। আমাদের পুলিশ প্রশাসন এ ঘটনা আঁচ করে ছেলেটি যেখানে থাকতো সেখানে অভিযান চালায়, তবে ছেলেটিকে পাওয়া যায়নি। সেই গ্রামটি রক্ষার জন্য পুলিশ মোতায়েন ছিল। যারা অগ্নিসংযোগ করেছে তারা দুষ্কৃতকারী। এই দুষ্কৃতকারীরা ওই এলাকা ছেড়ে পীরগঞ্জ থানার রঘুনাথপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামে গিয়ে কয়েকটি ঘরে অগ্নিসংযোগ করে। আমার কাছে যে তথ্য এসেছে সেখানে ২৫টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

দুষ্কৃতকারীরা বাড়িঘরে লুটপাট করেছে জানিয়ে তিনি বলেন, ৯০টির বেশি বাড়িঘর লুটপাট ও ভাঙচুর করা হয়েছে। এ ঘটনাগুলো পুলিশ যাওয়ার আগেই ঘটিয়েছে এবং রাতেই ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে অতিরিক্ত পুলিশ, এপিবিএন, র‌্যাব, বিজিবি গেছে। আমাদের নিরাপত্তার যত ধরনের ব্যবস্থা তা আমরা গ্রহণ করেছি। কিন্তু এই ঘটনাটি আকস্মিকভাবেই দুষ্কৃতকারীরা ঘটিয়ে ফেলেছে। সেখানে কোনো প্রাণহানি হয়নি। তবে সম্পদহানি হয়েছে, বাড়িঘর পুড়েছে। আমরা মনে করি এই লোকদের আমরা চিহ্নিত করেছি তাৎক্ষণিকভাবেই। এলাকাবাসীর সহায়তায় ৪৫ জনকে আমরা ধরেছি এবং আরও কয়েকজনকে ধরার জন্য চেষ্টা করছি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, আপনারা জানেন ইতোমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নিতে। জেলা প্রশাসন তাদের মধ্যে তাৎক্ষণিকভাবে নগদ অর্থ ও শাড়ি-কাপড় বিতরণ করেছে। সেখানকার এমপি মাননীয় স্পিকার, তিনিও উদ্যোগ নিয়েছেন। তাদের বাড়ি নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন, যার যা প্রয়োজন হয় দেওয়া হবে। খুব শিগগির আমরা তাদের বাড়িঘর তৈরি করে দেবো।

আইএইচআর/বিএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]