পর্যটন খাতে সব ধরনের শিশুশ্রম বন্ধ করা হবে

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৫৭ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২১

বাংলাদেশে পর্যটন খাতে সব ধরনের শিশুশ্রম বন্ধ করা হবে। একই সঙ্গে শিশু পর্যটকদের জন্য বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে গ্রহণ করা হবে প্রকল্পে।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) শেখ রাসেল দিবস উদযাপন উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান মো. হান্নান মিয়া এ কথা জানান।

তিনি বলেন, শেখ রাসেল দিবসে আমরা অঙ্গীকার করছি বাংলাদেশের পর্যটন স্থানগুলোতে শিশুবান্ধব অবকাঠামো স্থাপনে কর্মসূচি নেওয়া হবে। পর্যটন সেক্টরে বন্ধ করা হবে সব ধরনের শিশুশ্রম। করপোরেশনের হোটেল-মোটেলগুলোতে শিশু পর্যটকদের জন্য বিশেষ উপহার দেওয়া হবে।

এদিকে শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন।

কর্মসূচির মধ্য রয়েছে- হোটেল অবকাশের উদ্যোগে ৫০ জন এতিমের মধ্যে খাবার বিতরণ, করপোরেশনের প্রধান কার্যালয়সহ বিভাগীয় শহরে অবস্থিত তাদের হোটেল-মোটেলে জাতির পিতার পরিবারের সব শহীদ সদস্যদের জন্য কোরআন খতম, বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের হোটেল-মোটেলে আবাসনের ওপর একদিনের জন্য ৩৬ শতাংশ ডিসকাউন্ট এবং আলোচনা সভা।

আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান
মো. হান্নান মিয়া।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন যুগ্ম-সচিব ও পরিচালক (বাণিজ্যিক, পরিকল্পনা অর্থ ও প্রশাসন) মো. আব্দুস সামাদ। আরও উপস্থিত ছিলেন সংস্থার মহাব্যবস্থাপক, ব্যবস্থাপক এবং বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

আলোচনা অনুষ্ঠানে ‘শিশুবান্ধব পর্যটন উন্নয়নে সম্ভাবনা, প্রতিকূলতা এবং সুপারিশমালা’ নিয়ে উপস্থাপনায় ছিলেন বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের ব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) মো. জিয়াউল হক হাওলাদার।

আলোচনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- পর্যটন করপোরেশনের মহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্যিক) ও উপ-সচিব মো, শহীদুল ইসলাম ভূঞা, মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন ও অর্থ) ও উপ-সচিব মো. সফিউজ্জামান ভূঁইয়া প্রমুখ।

এমইউ/জেডএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]