চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রি: স্ত্রীসহ চাকরিচ্যুত পুলিশ গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২১ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

চট্টগ্রাম নগরের ইপিজেড থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে চাকরিচ্যুত পুলিশ সদস্য মো. মামুন উর রশিদকে (৪২) গ্রেফতার করেছে র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। একই অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় তার স্ত্রী আকলিমা বেগমকেও (৩৬)।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে থানার আলীশাহ পাড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে পুলিশের স্টিকারযুক্ত একটি চোরাই মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়।

র‌্যাব জানায়, গ্রেফতার মামুন ইপিজেড থানার আলীশাহ পাড়া এলাকার বাসিন্দা মো. আবু তাহেরের ছেলে। সোমবার তিনি ওই এলাকায় একটি চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রির জন্য অবস্থান করছেন- এমন সংবাদে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশের স্টিকারযুক্ত একটি চোরাই মোটরসাইকেল জব্দের পাশাপাশি গ্রেফতার করা হয় মামুনকে। এরপর তার দেওয়া স্বীকারোক্তিতে চোরাই কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে স্ত্রী আকলিমাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব আরও জানায়, মামুন একটা সময় বাংলাদেশ পুলিশের সদস্য ছিলেন। বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে তিনি পুলিশ থেকে চাকরিচ্যুত হন। এরপর তার অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড আরও বেড়ে যায়। এরমধ্যে তিনি গড়ে তোলেন মোটরসাইকেল চোরাচালানের একটি নেটওয়ার্ক। চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থান থেকে চুরি হওয়া মোটরসাইকেল সংগ্রহ করে তিনি পুলিশের স্টিকার লাগিয়ে বিক্রি করে দেন। তার এ কাজে সহযোগিতা করে স্ত্রী আকলিমাসহ বেশ কয়েকজন।

চট্টগ্রাম র‌্যাবের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এমএ ইউসুফ জাগো নিউজকে বলেন, চাকরিচ্যুত পুলিশ সদস্য মামুনের কাজে সহযোগী হিসেবে আরও দুজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এছাড়া গ্রেফতার মামুন ও তার স্ত্রীকে মামলা দায়ের করে ইপিজেড থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

মিজানুর রহমান/এমআরএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]