ছয় কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ, দম্পতির বিরুদ্ধে দুই মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:০৮ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

প্রায় ছয় কোটি টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সরকারি হাসপাতালের এক কর্মকর্তা দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মামলার আসামিরা হলেন মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন ও তার স্ত্রী ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজির নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী বেগম।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ সংস্থাটির উপ-পরিচালক মো. আলী আকবর বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

দুদকের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) মুহাম্মদ আরিফ সাদেক জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেনের নামে দুই কোটি ৮০ লাখ ৩১ হাজার ৫১৯ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদের প্রমাণ পাওয়া যায় দুদকের অনুসন্ধানে। এছাড়া দুদকের অনুসন্ধানে তার দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে এক কোটি সাত লাখ ৬৯ হাজার ১৭১ টাকার স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ গোপন করার প্রমাণ মিলেছে। যে কারণে তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ২৬(২) ও ২৭(১) ধারা ও মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন, ২০১২ এর ৪(২) ও ৪(৩) ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

অন্যদিকে জাকির হোসেনের স্ত্রী ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজির নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী বেগমের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় দুই কোটি ৯৯ লাখ ৩০ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ ও ৪৩ লাখ ৮০ হাজার ৫৬১ টাকার সম্পদ গোপন করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এসএম/বিএ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।