ঢাকায় আসছে ফাঁকা বাস, ছুটির দিনে গাবতলীতে যাত্রী খরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:২৬ এএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২

এদিকে ছুটির দিন শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) যাত্রী খরায় পড়েছে গাবতলী আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের কাউন্টারগুলো। ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া বাসগুলো অধিকাংশই ফাঁকা।

সকালে গাবতলী ঘুরে দেখা গেছে, যাত্রী চাপ না থাকায় অধিকাংশ টিকিট কাউন্টারই ছিল বন্ধ। ডিপোগুলোতে বাস ধোয়া-মোছার কাজ চলছে, অলস সময় পার করছেন পরিবহন শ্রমিকরা।

jagonews24

আমিন বাজার ব্রিজের গাবতলী অংশে তল্লাশিচৌকি থাকলেও সেখানে ছিল না পুলিশ। দূরপাল্লার বাস ও মোটরসাইকেলে তল্লাশি করতে দেখা যায়নি। ব্রিজের বাম পাশে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্যান্ডেলের ব্যবস্থা করেছে দারুস সালাম থানা ও মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ। সেখানে পুলিশ ও আনসার সদস্যদের বসে থাকতে দেখা গেছে।

একটি বাস থেকে সকাল ৯টায় আমিন বাজার ব্রিজে নামতে দেখা যায় চাকরিজীবী মোহাম্মদ শোয়েবকে। বাস ও রিকশা না থাকায় হাতে, কাঁধে ও মাথায় ব্যাগ নিয়ে বিপদে পড়েন এ যাত্রী।

তিনি জানান, গাড়ি কম থাকায় নেত্রকোনা থেকে ভেঙে ভেঙে ঢাকায় এসেছি। প্রত্যেকটি বাসেই যাত্রী কম ছিল। তবে পুলিশ কোনো চেক করেনি।

গাবতলী মোড়ে মোটরসাইকেল চালক আল আমিন জানান, সকাল ৭টা পর্যন্ত যাত্রীর চাপ ছিল বেশি। আমিন বাজার ব্রিজে গাড়ির জট ও তৈরি হয়েছে পুলিশের চেকিংয়ের কারণে। এখন যাত্রী নেই।

jagonews24

দূরপাল্লার বাসের পাশাপাশি, রাজধানীতে বাস কম দেখা গেছে। সন্ধ্যা নাগাদ বাস আরও কমে যাবে বলে পরিবহন সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

এ প্রতিবেদক আজ সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত গাবতলী এলাকায় ছিলেন। উভয়দিক থেকে যাত্রী খরার কথা কাউন্টার ম্যানেজাররা প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।

জননী পরিবহনের কাউন্টার ম্যানেজার মো. জামাল বলেন, যাত্রী কম থাকায় বাসগুলো দেরি করে ছাড়ছে। আমাদের যে গাড়ি ৯ টায় আসার কথা, সেটা ১০টার পরে আসবে। চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহ থেকে কমে যাওয়ায় যাত্রীও কম। সকাল থেকেই কাউন্টার ফাঁকা, অনেকেই আজকে কাউন্টার খুলেনি।

jagonews24

রাবেয়া পরিবহনের কাউন্টার ম্যানেজার আবদুল বাতেন সেলিম বলেন, রাজবাড়ী ও কুষ্টিয়ার বিভিন্ন জেলা থেকে সকালে আধা ঘণ্টা পর পর বাস আসার কথা। সকাল ১০টা নাগাদ বাস আসছে মাত্র ২টা। ওইদিকে বাস বন্ধ করে রেখেছে যাত্রী আসতে পারছে না। এদিকে ঝামেলা হওয়ার ভয়ে অনেকে ঢাকা ছাড়তে চাইছে না। শুক্রবার বেলা ১১টা পর্যন্ত যাত্রী চাপ থাকে, আজ সেটা নেই।

একই কথা জানান হানিফ পরিবহনের কাউন্টার ম্যানেজার সাজ্জাদ। তিনি বলেন, যাত্রী কম থাকায় আমাদের বাস গুলো ডিপোতে পড়ে রয়েছে।

শান্তি পরিবহনের কাউন্টার ম্যানেজার তানভীর জানান, ১০ তারিখের জন্য পার্বত্য জেলাগুলো থেকে কোনো বাস ছাড়ছে না। এখান থেকেও যাচ্ছে না। শনিবারের পর থেকে বাস চলবে।

এসএম/এমআইএইচএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।