র‍্যাবের বিশেষ অভিযান

মোহাম্মদপুর-ধানমন্ডিতে ১৫ ছিনতাইকারীসহ গ্রেফতার ২০

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৭ পিএম, ০৩ অক্টোবর ২০২৩

ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ‘আকাশ গ্রুপের’ পাঁচ ও পৃথক অভিযানে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ১৫ ছিনতাইকারীসহ ২০ জনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-২। মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) র‍্যাব-২ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি শিহাব করিম এ তথ্য জানান।

শিহাব করিম বলেন, সোমবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত র‍্যাব-২ বিশেষ অভিযান চালায় আদাবর থানাধীন শ্যামলী হাউজিং এলাকাসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়। এসময় গ্রেফতার করা হয় ২০ জনকে। গ্রেফতারদের কাছ থেকে চাপাতি, ছুরি, চাকু, ক্ষুর ও অন্যান্য দেশি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। মোবাইল ফোন ও নগদ টাকাও জব্দ করা হয়।

সম্প্রতি কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা বিভিন্ন অপরাধে মারাত্মকভাবে জড়িয়ে পড়ছে। কিশোর গ্যাং সদস্যরা মাদকাসক্ত হওয়ায় মাদকের টাকা জোগাড় করার জন্য সংঘবদ্ধ হয়ে ডাকাতি, ছিনতাই ও চুরির মত ঘটনা ঘটায়। মোহাম্মদপুরের বসিলা ও এর আশপাশ এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড বেড়ে গেছে। তারা জনমনে ত্রাস সৃষ্টি করে ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও পথচারীদের কাছ থেকে মোবাইল ছিনতাইসহ শৃঙ্খলা বিরোধী কার্যক্রম ঘটায়। এছাড়াও বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাইয়ের প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে।

jagonews24

আরও পড়ুন>রাজধানীতে কিশোর গ্যাংয়ের সশস্ত্র গণছিনতাই, ৪৮ ঘণ্টায় গ্রেফতার ৯ 

এএসপি শিহাব করিম আরও বলেন, এ বিষয়ে থানায় একাধিক জিডি ও মামলা হয়। সাধারণ মানুষ ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে সর্বস্ব হারাচ্ছে, এতে এলাকার পথচারী মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। রাজধানীবাসী বিভিন্ন এলাকায় চলাচল করার সময় ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। নারী, পুরুষ, স্কুলগামী শিক্ষার্থীসহ নির্বিশেষে সবাইকে তিক্ত অভিজ্ঞতায় পড়তে হয়। এরই পেক্ষিতে র‍্যাব-২ এই চক্রের ওপর গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে।

আরও পড়ুন> কিশোর গ্যাংয়ের সশস্ত্র গণছিনতাই, পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন 

তিনি বলেন, পরবর্তীতে র‍্যাব-২ এ ঘটনার প্রেক্ষিতে মোহাম্মদপুর, আদাবর, শেরেবাংলা নগর ও ধানমন্ডি এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ২০ জনকে গ্রেফতার করে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা একাধিক সংঘবদ্ধ কিশোর গ্যাং চক্রের সদস্য। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় রাতের আধারে ফুটপাতের দোকান ও পথচারীদেরকে তাদের কাছে থাকা ক্ষুর-চাকু ও দেশি অস্ত্র দিয়ে ভয়-ভীতি দেখিয়ে তাদের কাছ থাকা নগদ টাকা-পয়সা, স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে ডাকাতি ও ছিনতাই করে বলে স্বীকার করেছে।

টিটি/এসএনআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।