‘৫ জানুয়ারি থেকে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে’


প্রকাশিত: ০১:৫৯ পিএম, ০৯ জুলাই ২০১৭
‘৫ জানুয়ারি থেকে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে’

সরকার গুম-খুনের মাধ্যমে আবারও অবৈধভাবে ক্ষমতায় বসতে চায়। এমন পরিস্থিতি বিএনপি কোনোভাবেই মেনে নেবে না- এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ‘আগামী নির্বাচনে কোনো ধরনের কারচুপি হলে ৫ জানুয়ারি থেকে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে।’

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে যুবদল আয়োজিত বিএনপির কারাগারে আটক নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে এমন মন্তব্য করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য।

গয়েশ্বর বলেন, ‘শেখ হাসিনার অধীনে বিএনপি কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। একটি বস্তুনিষ্ঠ নির্বাচনে বিএনপি অংশ গ্রহণ করতে চায়। তাই জনগণের অংশগ্রহণে আওয়ামী লীগকে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনের মাধ্যমে নিজেদের জনপ্রিয়তা যাচাই করতে হবে।’

‘সরকার ফরহাদ মজহারের গুমের বিষয়টি নিয়ে নাটক করছে’- এমন মন্তব্য করে গয়েশ্বর বলেন, জনগণ গুম-খুনের রাজনীতি বেশিদিন মেনে নেবে না। এ পথ থেকে সরে আসার আহ্বান জানান তিনি।

bnp

সভাপতির বক্তব্যে মির্জা আব্বাস বলেন, শেখ হাসিনার জন্য জিয়াউর রহমান একটি আতঙ্কের নাম। তিনি জিয়া পরিবারের সদস্যদেরও ভয় পান। তাই তিনি জিয়ার মাজার স্থানান্তরের ষড়যন্ত্র করছেন।

তিনি বলেন, জনগণ আওয়ামী লীগের শাসন চায় না। তাই তারা (আওয়ামী লীগ) ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন করে জনগণের ওপর শোষণ করছে। অন্যদিকে বিএনপির নেতাকর্মীদের আটক করে গুম-খুন করছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ পেশীশক্তি দিয়ে বিএনপিকে নির্বাচনে নিতে চায়। কোনো ভয়ভীতি ও প্রলোভন দেখিয়ে বিএনপিকে নির্বাচনে নেয়া যাবে না। বিএনপিকে নিতে হলে সমঝোতার মাধ্যমে একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজন করতে হবে।

অনুষ্ঠানে যুবদল কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, মহানগর দক্ষিণ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রফিকুল আলম মঞ্জুসহ দক্ষিণ যুবদলের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

এমএইচএম/এমএআর/জেআইএম