আমরা আর নিরাপদ নই : বি চৌধুরী

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:২৯ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০১৭

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিকল্প ধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, যেভাবে হত্যা-গুম বেড়েছে তাতে আমরা আর নিরাপদ নই। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এসবের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ গড়ে তুলতে হবে।

বিদ্যুতের মূল্য বাড়ানোর প্রতিবাদে মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ৩ দলের সমাবেশে তিনি একথা বলেন। ৩ দলের মধ্যে ছিল বিকল্প ধারা বাংলাদেশ, জাতীয় সমাজতান্তিক দল-জেএসডি ও নাগরিক ঐক্য।

বি চৌধুরী বলেন, এ বয়সেও আমাকে রাজপথে নামতে হয়েছে। কেননা ভবিষ্যত প্রজন্ম আমাদের ক্ষমা করবে না যদি এসব অন্যায়ের বিরুদ্ধে চুপচাপ বসে থাকি। তিনি বলেন, আমরা বয়স হয়েছে। জীবনে কখন কি হয়, জানি না। তাই বলতে চাই যাওয়ার আগে একটি সুন্দর বাংলাদেশ দেখতে চাই। লুটপাটের বাংলাদেশ দেখতে চাই না।

তিনি আরও বলেন, এ সরকার কীভাবে জনগণের টাকা লুট করছে তা দেশবাসী জানে। এ ব্যাপারে তো চুপ থাকা যায় না। সারা দেশে খুন-গুম-হত্যা ধর্ষণে ছেয়ে গেছে। এগুলো দেখে এখন লজ্জায় মাথা হেট হয়ে যায়। তিনি প্রশ্ন করেন সরকারের কী এসব দেখে লজ্জা লাগে না।

কারো বেতন বেড়ে যাওয়ার কারণে বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়নি। বাড়ানো হয়ে ঘুষ খাওয়ার জন্য- যোগ করেন বি চৌধুরী।

জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, সরকারের পদত্যাগ ছাড়া আমরা ঘরে ফিরছি না। বিদ্যুতের দাম কমাতে সরকারকে বাধ্য করা হবে। দাম না কমালে সরকারের ভাগ্যে কি আছে, তা তাদের জানা নেই।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, দেশে তুঘলকি কাণ্ড চলছে। সমাবেশে বিকল্প ধারা বাংলাদেশ এর মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান ও জেএসডি সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে থেকে জেএসডি এবং নাগরিক ঐক্যের পক্ষ থেকে বিদ্যুতের বর্ধিত দাম প্রত্যাহার ও চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম কমানোর দাবিতে সিপিবি, বাসদ ও বাম মোর্চা আহূত আগামী ৩০ নভেম্বর অর্ধদিবস হরতালের সংহতি জানান হয়।

এফএইচএস/জেএইচ/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :