হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর আরও হামলার আশঙ্কা কাদেরের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৩৭ এএম, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
ফাইল ছবি

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি-ঘর ও মন্দিরে আরও হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার রামকৃষ্ণ মিশনে ভারতের অর্থায়নে প্রস্তাবিত বিবেকানন্দ ভবনের নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

২০১৪ সালের মতো নির্বাচন দিলে জনগণ তা মেনে নেবে না বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ২০১৪ সালে বেগম জিয়া গণভবনে আসলে গণতন্ত্রের চিত্র পাল্টে যেত। তিনি তো সেদিন গণভবনে আসেননি।

মাঝে মাঝে হিন্দুদের বাড়ি-ঘর-মন্দিরে হামলা হয়, এর পিছনে রাজনীতিও আছে মন্তব্য করে কাদের বলেন, এ বছর যেসব হামলা হবে, মনে রাখবেন এর পিছনে রাজনীতি আছে। কারণ নির্বাচন সামনে, সেজন্য বর্তমান সরকারকে দায়ী করে ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক বিনষ্টের মতলব থাকতে পারে। আর যারা হিন্দুদের ওপর হামলা করে বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্কে ফাটল ধরাতে চায় তারা বোকার স্বর্গে বাস করে। সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়নের মাধ্যমে দু দেশের অবিশ্বাসও সন্দেহের দেয়াল ভেঙে গেছে। দু’দেশের সম্পর্কে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে।

সংখ্যালঘুদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মাঝে মাঝে কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে। এরসঙ্গে ক্ষমতাসীন পার্টির কোনো সংযোগ নেই। এসব ঘটনার বিচার হচ্ছে। আমরা কাউকে ছেড়ে দিচ্ছি না। আওয়ামী লীগের কেউ হলেও সে পার পাবে না।

সংখ্যালঘুদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী আরও বলেন, যারা জঙ্গিবাদের পৃষ্টপোষক তারা বন্ধু হতে পারে না। নির্বাচন এলে তারা মুখোশ ধারণ করে আপন হতে চায়। তাদেরকে চিনে রাখুন। নির্বাচনে গোলমাল হলে তারাই ঘটাবে।

রামকৃষ্ণ মিশন ঢাকার কার্যনির্বাহীর কমিটির সভাপতি বিচারপতি গৌর গোপাল সাহার সভাপতিত্বে সভায় বক্তৃতা রাখেন, রামকৃষ্ণ মঠের স্বামী অমেয়ানন্দজী মহারাজ, ঢাকা-৬ আসনের সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ, ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, রাজউক চেয়ারম্যান আবদুর রহমান প্রমুখ।

এইউএ/এএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :