সূর্য ডোবার আগেই সাদকে দিল্লি ফেরত পাঠাতে হবে : হেফাজত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪১ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৪:১০ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৮
সূর্য ডোবার আগেই সাদকে দিল্লি ফেরত পাঠাতে হবে : হেফাজত

তাবলিগ জামাতের দিল্লির আমির মাওলানা সাদ কান্ধলভীকে সূর্য ডোবার আগেই দিল্লি ফেরত পাঠানোর হুমকি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম। এছাড়া কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে সংগঠনটি। বৃহস্পতিবার দুপুরে বায়তুল মোকাররম মসজিদ চত্বরে নিজেদের বৈঠক শেষে একথা জানান হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ফজলুল করিম কাশেমী।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার সূর্য ডোবার আগেই (সন্ধ্যার মধ্যে) মাওলানা সাদকে দিল্লি ফেরত পাঠাতে হবে। পাঠানো না হলে দেশ অশান্ত হয়ে পড়বে। রাস্তায় গাড়ি চলবে না।সাদ নিজেকে দাওয়াতুল তাবলিগের স্বঘোষিত আমির হিসেবে দাবি করেন যা পুরোপুরি অবৈধ। তিনি কুরআন-হাদিসের অপব্যাখ্যা দিয়েছেন।

মাওলানা ফজলুল করিম কাশেমী বলেন, ‘সকালে আমরা কাকরাইল মসজিদে যেতে চাইলে পুলিশ ঢুকতে দেয়নি। তাই আমরা বায়তুল মোকাররমে সমবেত হয়েছি।’ কাকরাইল মসজিদের ওয়াসিফ, নাসিফসহ কয়েকজন মাওলানা সা’দের সঙ্গে মিলে বিশ্ব ইজতেমার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করতে চাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এদিকে সকাল থেকেই বায়তুল মোকারম মসজিদ এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকতে দেখা গেছে। যদিও ডিএমপি জানিয়েছে বিশ্ব ইজতেমা সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হওয়ার প্রত্যাশায় মাওলানা সাদ ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন না। তারপরও অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে সতর্ক পুলিশ। কাকরাইল মসজিদে এখনও পুলিশি নিরাপত্তা বহাল আছে।

অন্যদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘মাওলানা সাদ বিশ্ব ইজতেমায় যাবেন কি যাবেন না, সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন ইজতেমার শীর্ষস্থানীয় নেতারা ও তাবলিগ জামাতের মুরব্বিরা। সরকার ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বিশ্ব ইজতেমায় মুসল্লিদের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করবে। আমরা লক্ষ্য রাখছি যাতে বিশ্ব ইজতেমায় কোনো ধরনের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি না হয়।’

এআর/এসএইচএস/জেআইএম/আইআই