খালেদার চিকিৎসা নয়, ইস্যু এখন আন্দোলন!

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০৮ পিএম, ১৮ জুন ২০১৮

‘বিএনপি নেতারা দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নয় বরং আন্দোলনের ইস্যু খুঁজতে ব্যস্ত’ বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ মন্তব্য করেন।

কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য সরকার প্রথমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এবং পরে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নিতে চাইলেও বেগম জিয়া তাতে রাজি হননি। তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে চান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বেগম জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে আমি একটি কথা বারবার বলেছি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, দেখুন বাংলাদেশে চিকিৎসার জন্য সবচেয়ে আধুনিক ব্যবস্থা সিএমএইচ ছাড়া অন্য কোথাও আছে বলে আমাদের জানা নেই। এখন সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) সামরিক পরিবারের একজন কেন ট্রিটমেন্ট নিতে সংশয়ে আছেন, কেন তার এখানে শঙ্কা, কেন সিএমএইচ নয়? সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের চেয়ে সুচিকিৎসা অন্য কোথাও হতে পারে না।’

তিনি বলেন, ‘আমার সন্দেহ আছে বিএনপি নেতাদের তার (বেগম জিয়া) চিকিৎসা নিয়ে কোনো মাথাব্যথা আছে কিনা! তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে মাথাব্যথা আছে কি-না! আমার তো মনে হয় তারা চিকিৎসার চেয়ে, বেগম জিয়ার শারীরিক অবস্থার চেয়ে আন্দোলনের ইস্যু খোঁজার বিষয়টি বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। তারা বেগম জিয়াকে কেন্দ্র করে তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে রাজনীতি করছেন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘যেখানে সরকার সিএমএইচে তার সুচিকিৎসার কথা বলেছেন, সেটি ডিনাই করার অর্থ হচ্ছে তারা তার চিকিৎসার ব্যাপারে যত না আগ্রহী তার চেয়ে বেশি ঈদের পর সর্বাত্মক আন্দোলন করার; এ বিষয়ে ইস্যু খোঁজায় বেশি ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন তারা।’

এক/এগারোর সময় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিলেন- এ বিষয়ে সাংবাদিকদের করা প্রশ্নে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তখন যদি সিএমএইচে এলাউ করা হতো তাহলে স্কয়ারে তিনি যেতেন না।’

বিএনপি নেতাকর্মীদের খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না- এমন অভিযোগের বিষয়ে কাদের বলেন, ‘বিএনপি নেতারা কি প্রতিদিন দেখা করবেন? আত্মীয়-স্বজন যখনই দেখা করতে চান, তারা দেখা করেন। আমরা যখন জেলে ছিলাম তখন আত্মীয়রাই দেখা করেছে। দলীয় লোকদের দেখা করার কোনো সুযোগ সেখানে ছিল না। তারপরও তিনি একজন বড় নেত্রী হিসেবে আইনজীবীদের সঙ্গে বা কিছু কিছু সময় নেতাদের সঙ্গে দেখা করতে পারেন। তাই বলে বিএনপি নেতারা প্রতিদিন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে আসবেন- সেই সুযোগ তো নেই। এটা জেলখানা, কারও বাসভবন নয়।’

সম্প্রতি বিএনপি নেতারা ভারত সফর করেছেন। এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘জনগণ তাদের ডাকে সাড়া দিচ্ছে না, তারা নানান তৎপরতা চালাচ্ছেন। বিদেশিদের কাছে নালিশ দিচ্ছেন। ব্যাংকক থেকে লন্ডনে যোগাযোগ, দুবাইয়ে যোগাযোগ- সব খবর সরকারের কাছে আছে। আমরা শুধু দেখছি, তারা কী কী করেন? এসব মানুষ কখন করে...নিজের দেশের জনগণের প্রতি যখন আস্থা থাকে না; তখনই হতাশ হয়ে এদিক-সেদিক ষড়যন্ত্রমূলক রাস্তা ধরতেও কোনো দ্বিধা থাকে না।’

তিনি বলেন, ‘মানুষ এখন নির্বাচনের মুডে, সবাই প্রচার শুরু করে দিয়েছেন। চার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হবে। এগুলো সেমি ফাইনাল, ডিসেম্বরে ফাইনাল। বিএনপিও যে বসে আছে ঠিক তা নয়, সবাই প্রস্তুতি নিচ্ছেন।’

‘ভালো ব্যবস্থাপনার জন্য এবার ঈদে মানুষের দুর্ভোগ হয়নি’- উল্লেখ করে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, ‘এবার ঈদযাত্রায় অনেক আশঙ্কা ছিল কিন্তু আমাদের ভালো ব্যবস্থাপনার জন্য ভালোভাবে মানুষ বাড়ি ফিরেছেন। এটার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।’

এছাড়া এবার ঈদের সময় দুর্ঘটনাও অন্যান্য বছরের চেয়ে কম হয়েছে বলে দাবি করেন ওবায়দুল কাদের।

আরএমএম/এমএআর/পিআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :