সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতে টাকা নিয়েছেন সিনহা : জয়

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২২ এএম, ১৩ আগস্ট ২০১৮

বাংলাদেশের সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহা সম্প্রতি নিউ ইয়র্কে যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেমের ভাইয়ের সাথে দেখা করেছেন এবং বড় অংকের টাকা নিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে এবং তার তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি-বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। রোববার তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সজীব ওয়াজেদ জয় তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, ‘কিছু তথ্য আমার কাছে এসেছে যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। নিন্দিত সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহা সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক এসেছিলেন। সেখানে তিনি গোপনে যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেমের ভাই মামুনের সাথে দেখা করেন। আমরা জানতে পেরেছি মামুনের কাছ থেকে তিনি বড় অংকের টাকা পেয়েছেন। টাকাটা তাকে দেয়া হয়েছে আমাদের সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলার জন্য। তাদের এই আলাপ দেখেছে ও শুনেছে এরকম সাক্ষীও আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত, আমাদের দেশে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র খুবই সাধারণ একটি বিষয়। এই প্রবন্ধটিতে খুব সুন্দর ভাবে তুলে ধরা হয়েছে আমাদের ‘কূ-শীল’ সমাজ কিভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাতেন যদি ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্টের ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হতো।’

joy

‘ষড়যন্ত্রের ক্ষেত্রে অপিরিচিত বা অজনপ্রিয় মানুষের ভূমিকা কম। একটি ষড়যন্ত্রকে সফল করতে হলে দরকার হয় উচ্চপর্যায়ের ও ক্ষমতাবান কাউকে। যেমন সিনহা বা শহিদুল আলম।’ -বলেন তিনি।

ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে সরকারের মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতাদের তোপের মুখে পড়েন সাবেক এই প্রধান বিচারপতি। পরে ২ অক্টোবর এক মাস ছুটির কথা জানিয়ে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দেন এবং ১৩ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে দেশ ছাড়েন সিনহা। পরে ওখান থেকে দেশে না ফিরে প্রধান বিচারপতির পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

আরএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]