অচিরেই খালেদার বিরুদ্ধে চার্জশিট : শেখ সেলিম


প্রকাশিত: ০৩:২৩ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০১৫

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামালার আসামি করে অচিরেই তার বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ সেলিম।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলে কৃষি ব্যাংক ভবনে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কৃষি ব্যাংক আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

খালেদাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, তুমি (খালেদা জিয়া) ভিক্টোরিয়ার রানী সেজে পার পাবে না। অপরাধ করে আইনের কাছে কোনো রানীর রক্ষা হয় না। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামালা করেছো। পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা করেছো। এসব হত্যাকাণ্ডের তোমার বিরুদ্ধে অচিরেই চার্জসিট গঠন হবে। কোনো ষড়যন্ত্রই তোমার বিচার ঠেকাতে পারবে না।

শেখ সেলিম বলেন, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে চিরতরে নিশ্চিহ্ন করার জন্য গ্রেনেড হামলা খালেদা জিয়া ও তারেকের নেতৃত্বে চালানো হয়। তোমার (খালেদা) ছেলে তারেক রহমানেরও রক্ষা হবে না। তারও বিচার সম্পন্ন করতে সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু হত্যা সম্পর্কে আওয়ামী লীগের এই প্রবীণ নেতা বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে জিয়াউর রহমান, খালেদ মোশাররফ, মোস্তাক, কে এম সফিউল্লাহ , কর্নেল তাহের জড়িত। এরা বেঈমান। আর কে এম সফিউল্লাহ তো বেয়াদব, অসভ্য। সে কি করে বঙ্গবন্ধুকে বলে আপনি বাসা থেকে বের হয়ে যান। কত বড় বেয়াদব ও অসভ্য। যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে তারাও ভালোভাবে বিদায় নেয়নি। জিয়াউর রহমানের লাশও সিঁড়িতে পড়েছিল। মোস্তাকের কাছে কোনো ডাক্তার যেতনা। তার গায়ে গন্ধ হয়ে গিয়েছিল। কর্নেল তাহেরকেও ক্ষমতার ভাগাভাগি নিয়ে জিয়া হত্যা করেছে। আর কে এম সফিউল্লাহ বেঁচেও মরে আছে। ও এখন একর পর এক মিথ্যা কথা বলছে।

এই সরকারের খুব তাড়াতাড়ি পতন হবে খালেদা জিয়ার এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, আমি গোয়েন্দা সংস্থার কাছে জানতে চাই, দেখেন খালেদা জিয়া কি জানে। নাকি ষড়যন্ত্র করছে। ষড়যন্ত্র করে ধরা পড়লে বিচার হবেই। কোনো রেহাই নেই।

কৃষি ব্যাংকের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক এম এ ইউসুফের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন কৃষি ব্যাংকের চেয়ারম্যান মোহম্মদ ইসমাইল, পরিচালক মো. মশিউর রহমান, কৃষি ব্যাংক কর্মচারী ইউনিয়ন সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদ রাজু, জাতীয় শোক দিবস পালন কমিটির আহ্বায়ক ড. লিয়াকত হোসেন মোড়ল প্রমুখ।

এএসএস/এসকেডি/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :