সংসদে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল : ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪১ পিএম, ০৫ মে ২০১৯
ফাইল ছবি

‘বিচার বিভাগসহ গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে’ এমন অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশে আইন ও বিচারব্যবস্থা না থাকায় আমাদের জন্য কাজ করা খুবই কঠিন। কিন্তু আমরা সে জন্য ছেড়ে দেব, বসে থাকব এমনটা না। আমরা অবশ্যই পথ খুঁজব। আমাদের পার্লামেন্টেও লড়াই করতে হবে। বাইরেও লড়াই করতে হবে।

তিনি বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে রাজনীতিতে স্থির বলতে কিছু নেই। স্থিরভাবে কোনো কিছু থাকে না। এটা সবসময় পরিবর্তন হতে থাকে। ৯০-এর যে চিন্তা-ভাবনা, পরিস্থিতি, পরিবেশ সেগুলো কি ২০১৯ সালে আছে? সুতরাং আমাদেরকে ২০১৯ সালের রাজনীতিকে বিশ্লেষণ করে, পর্যবেক্ষণ করে তার পথ বের করতে হবে।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে সম্মিলিত ছাত্র ফোরাম আয়োজিত এক স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা-৭ আসনের সাবেক এমপি ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নাসিরউদ্দিন আহাম্মেদ পিন্টুর চতুর্থ মৃতুবার্ষিকী উপলক্ষে এ স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, শুধুমাত্র সস্তা স্লোগান দিয়ে কথা বললে চলবে না। আমাদের রাস্তা বের করতে হবে, পথ বের করতে হবে। সেই পথ কীভাবে সঠিক হয় চিন্তা করতে হবে। শুধুমাত্র নেগেটিভ চিন্তা করলে হবে না, পজেটিভ চিন্তা করতে হবে।

এমপিদের সংসদে যাওয়া নিয়ে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সিদ্ধান্তকে সঠিক উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মহোদয় সংসদে যাওয়ার ব্যাপারে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যখন আমরা বলেছিলাম সংসদে যাব না। ওই সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল। কারণ আমাদের পার্লামেন্টেও লড়াই করতে হবে। বাইরেও লড়াই করতে হবে।

বিএনপি ঐক্যবদ্ধ রয়েছে দাবি করে ফখরুল বলেন, আমাদের দলের এতটুকুও সমস্যা নেই। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকার তার জামিন দিতে সরকার ভয় পায়। কারণ দেশনেত্রীকে মুক্তি দিলে হ্যামিলিয়নের বাঁশিওয়ালার মতো তার পেছনে মানুষ ছুটে আসবে।

এ সময় তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা দরকার। কারারুদ্ধ অবস্থায় তার স্বাস্থ্যের কিছু হলে এর দায়দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে।

সরকারের উন্নয়ন প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের প্রবৃদ্ধি হচ্ছে। সাধারণ মানুষের কোনো উন্নয়ন হচ্ছে না। অর্থনীতির অবস্থা অত্যন্ত ভয়ঙ্কর। এই সরকার শুধু গণতন্ত্রেরই ক্ষতি করছে দেশের ও ক্ষতি করেছে।

নাসিরউদ্দিন পিন্টুর স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাকে কারাগারে হত্যা করা হয়েছে।

কেএইচ/বিএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :