খালেদাকে মুক্তি দেওয়া সরকারের একটা ভালো কাজ হবে : দুদু

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:২০ পিএম, ১৮ জুন ২০১৯

খালেদা জিয়াকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হলে দেশবাসী এটাকে সরকারের অনেক খারাপ কাজের মাঝে একটা ভালো কাজ মনে করবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু। একই সঙ্গে নতুন অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শুধু বিত্তবানদের স্বার্থ রক্ষা করা হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, আন্দোলন ছাড়া সরকারের পতন সম্ভব নয়।

মঙ্গলবার (১৮ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গরিবের বাজেট চাই শীর্ষক এক মানববন্ধন থেকে তিনি এসব কথা বলেন।

দুদু বলেন, বাংলাদেশের বিচারব্যবস্থা স্বাধীন না -এটা আরেকবার প্রমাণ হলো। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়াকে যদি কোর্ট জামিন দেয় তাহলে সরকারের আপত্তি থাকবে না। তাহলে ধরে নেওয়া যায় এতদিন সরকারের আপত্তির কারণেই কোর্ট তাকে জামিন দেয়নি। সরকার যদি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও জামিনের পথে বাধা না হয় তাহলে তিনি মুক্তি পাবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

শেখ হাসিনা ও ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন, আর তাকে মুক্তি দিয়ে আপনারা যে এত খারাপ কাজ করেছেন তার মধ্যে একটি ভালো কাজ করুন। খালেদা জিয়াকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হলে দেশবাসী এটাকে সরকারের অনেক খারাপ কাজের মাঝে একটা ভালো কাজ মনে করবে।

দুদু বলেন, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি, হাইকোর্টের বিচারপতি, জজ কোর্টের বিচারপতিদের আমি দোষারোপ করব না। বর্তমান পরিস্থিতির কারণেই বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না। বর্তমান সরকার নির্বাচনের নামে তামাশা করে সংসদ দখল করে নিয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীসহ সকল বাহিনীকে দখল করে নিয়েছে।

সাবেক এই ছাত্র নেতা বলেন, ৭১ সালের যুদ্ধ হয়েছিল গণতন্ত্রের জন্য, মানুষের অধিকারের জন্য, বর্তমানে দেশে গণতন্ত্র ও মানুষের অধিকার কিছুই নেই। দেশে নির্বাচন বলে, বিচার বলে কিছু নাই। দেশের আইন-শৃঙ্খলা বলতে কিছুই নাই।

২০১৯-২০ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেটে সম্পর্কে তিনি বলেন, বাজেট পুরাটাই বড়লোকের, গরিব সাধারণ মানুষের না। কিছুদিন আগেও কৃষকের ধান ক্ষেতে আগুন দিয়েছে ধানের দাম না পাওয়ার কারণে। ধানের উৎপাদনে যেখানে ৮০০ থেকে ১০০০ টাকা খরচ সেখানে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায় ধান বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছে। অথচ এই বাজেটে কৃষকের জন্য কোন ছাড় দেওয়া হয়নি। ছাড় দেওয়া হয়েছে বেশি যারা ব্যাংক লুট করেছে, শেয়ার বাজার লুট করেছে।

দুদু আরও বলেন, শিল্প ক্ষেত্রে শিক্ষা ক্ষেত্রে ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে যে বাজেট দেওয়া হয়েছে আমরা বলতে পারি সেই বাজেট অত্যন্ত কম, গত ৪০/৪৫ বছরে সবচেয়ে কম বাজেট দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, যে দেশে নির্বাচন করে সরকার গঠনের সব পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সেখানে আন্দোলন ছাড়া কোন উপায় নেই। এ দেশে আন্দোলন ছাড়া ভালো কোনো কিছু প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। একাত্তরে আন্দোলন করে আমরা স্বাধীনতা এনেছি এবং ৭১ এর পরেও বিভিন্ন সময়ে আন্দোলন করে আমাদের দাবি আদায় করেছে। তাই আন্দোলন ছাড়া অন্য কোনো পথ নেই। আন্দোলন ছাড়া এ সরকারের পতন হবে না।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের প্রচার সম্পাদক গোলাম সরোয়ার সরকারের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম দলের প্রচার সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সেকুল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

কেএইচ/আরএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :