পরবর্তী করণীয় কী, তারেকের সঙ্গে বৈঠকে সিনিয়র নেতারা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৫০ পিএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ছাত্রদলের কাউন্সিল নিয়ে পরবর্তী করণীয় ঠিক করতে বৈঠকে বসেছেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা। শুক্রবার বিকেল সোয়া ৪টায় গুলশানে চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান বৈঠকের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন। গুলশানের একটি সূত্র জানায়, এ বৈঠকে লন্ডন থেকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত রয়েছেন।

আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গতকাল বৃহস্পতিবার কাউন্সিলের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন আদালত।

ছাত্রদলের সদ্য বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-ধর্মবিষয়ক সম্পাদক আমানউল্লাহ আমানের এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ঢাকার চতুর্থ সহকারী জজ নুসরাত জাহান বিথি এ আদেশ দেন।

এছাড়া ছাত্রদলের কাউন্সিল অনুষ্ঠানের বিষয়ে কেন স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেয়া হবে না তা জানতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১০ নেতাকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন আদালত।

বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আদেশের কপি পৌঁছে দেয়া হয়। এর পরপরই বিষয়টি নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে বৈঠকে বসেন কাউন্সিল পরিচালনা কমিটির নেতারা।

বৃহস্পতিবার রাতেই নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত জরুরি সংবাদ সম্মেলন ডাকেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। তিনি এ সময় অভিযোগ করে বলেন, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কাউন্সিলে আদালত যে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন সেটা ‘অযৌক্তিক’। কোনো বিচার বিশ্লেষণ ও যুক্তিতর্ক ছাড়া ছাত্রদলের কাউন্সিল স্থগিতের আদেশ দেয়া গভীর চক্রান্তমূলক। সরকারের কারসাজিতেই এহেন আদেশ প্রদান করা হয়েছে।

শুক্রবারের বৈঠকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, ডক্টর মঈন খান, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বেগম সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু প্রমুখ উপস্থিত রয়েছেন।

কাউন্সিলের ওপর আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদে শুক্রবার প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেছেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। আদালতের এমন আদেশের জন্য সরকারকে দায়ী করেন তারা।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে ছাত্রদলের সভাপতি প্রার্থী ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী মো. মোস্তাফিজুর রহমান, সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা মো. আব্বাস আলীর নেতৃত্বে এ বিক্ষোভ মিছিল হয়।

কেএইচ/এমএআর/এমকেএইচ