বাকশাল কায়েম করতে চায় সরকার


প্রকাশিত: ০৩:৫৪ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৫

বর্তমান স্বৈরাচারী সরকার গণতন্ত্রের সব পথ বন্ধ করে দিয়ে বাকশাল কায়েম করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম।

সোমবার সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের রোগ মুক্তি কামনায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দল এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে।

আব্দুস সালাম বলেন, আর এই  বাকশাল কায়েমের চেষ্টার বিরুদ্ধে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। স্বৈরাচারী সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন চলবে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত এ  আন্দোলন চলবে।

তিনি  বলেন, ১/১১ এর সময় আমারা মনে করেছিলাম মঈন উদ্দীন ফখরুউদ্দীন স্বৈরাচারী সরকার থেকে কোন নির্বাচিত সরকার এসে গণতন্ত্র রক্ষা করবে। ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত করবে। কিন্তু শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে ১/১১ এর সরকারের চেয়ে আরো বেশি স্বৈরাচারী ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে।

অবৈধ সরকার বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের নামে হাজার হাজার মিথ্যা মামলা দিয়ে জেলে নিয়ে গেছে বলেও অভিযোগ করেন সালাম।

দোয়া এবং মিলাদ মাহফিল পরিচালনা করেন ওলামা দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা রফিকুল ইসলাম।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের সভাপতি কাজী আমির খসরুর সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নাসিমসহ শ্রমিক দলের নেতাকর্মীরা।

আএসএস/এসকেডি/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :