এমসি কলেজের ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান জিএম কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০৫ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের। তিনি বলেছেন, আইনের শাসন নিশ্চিত করতে সিলেটের এমসি কলেজে নারী নির্যাতনের ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের কার্যালয় মিলনায়তনে বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মতবিনিময়কালে জিএম কাদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশের মানুষ বিচারব্যবস্থার ওপর আস্থা রেখেই এমসি কলেজে জঘন্য ঘটনায় অভিযুক্তদের শাস্তি দেখতে অপেক্ষা করে আছে।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, অপরাধীর কোনো দলীয় পরিচয় থাকতে পারে না। অপরাধী যে দলেরই হোক, তাকে আইনের মুখোমুখি হতেই হবে।

তিনি বলেন, রেমিট্যান্স যোদ্ধারা আজ কাজে ফিরতে রাস্তায় আন্দোলন করছেন। তারা টিকিটের নিশ্চয়তা পাচ্ছেন না। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক।

জিএম কাদের বলেন, সৌদি গমনেচ্ছুরা যেন ভিসার মেয়াদ শেষ হবার আগেই বিমানের টিকিট পায় সেজন্য সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে। পাশাপাশি যাদের ভিসার মেয়াদ ইতোমধ্যেই শেষ হয়ে গেছে, তাদের জন্যও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানান জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের। এছাড়া বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের যৌক্তিক দাবিগুলো মেনে নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা আল মাহমুদ, যুগ্ম-মহাসচিব মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, তথ্য ও গবেষণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম মিন্টু, যুগ্ম-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এস এম রহমান পারভেজ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক প্রতিনিধি দলের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রুহুল আমিন, মহিবুল ইসলাম ইউসুফ, মাহবুবুর রহমান, শামিম হোসেন, খাইরুল আলম, আব্দুর গফুর, প্রশান্ত কুমার ও রবিউল ইসলাম।

এইউএ/এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]