যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রলীগ সভাপতির প্রচেষ্টায় নিউইয়র্কে শহীদ মিনার


প্রকাশিত: ০৯:০৭ পিএম, ৩০ জানুয়ারি ২০১৭

বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে ১৯৫২ সালের শহীদদের স্বীকৃতি স্বরূপ ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। এরপর কানাডাসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে শহীদ মিনার নির্মিত হয়। এরই ধারবাহিকতায় এবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে প্রথমবারের মতো বাঙালিদের উদ্যোগে নির্মিত হতে যাচ্ছে শহীদ মিনার। সিটি ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কের লার্গোডিয়া কমিউনিটি কলেজে এ শহীদ মিনার নির্মিত হচ্ছে।

নিউইয়র্কে বসবাসরত বাঙালিদের দীর্ঘদিনের একটি স্বপ্ন ছিল স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের। বাংলাদেশি কমিউনিটির অনেকেই চেষ্টা করেও সফল হতে পারেননি। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি জাহিদ হাসান যখন লার্গোডিয়া কমিউনিটি কলেজের ছাত্র ছিলেন তখনও তিনি চেয়েছিলেন যারা মায়ের ভাষার জন্য জীবন দিয়েছেন তাদের মর্যাদাকে আরও ঊর্ধ্বে তুলে ধরতে লার্গোডিয়া স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের মাধ্যমে কিছু একটা করতে। কিন্তু তিনি তখন পারেননি।

জাহিদ হাসান তখন ইউনেস্কো কর্তৃক ভাষা শহীদদের অবদানের স্বীকৃতির জন্য ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের গুরত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহ করে একটি প্রোফাইল তৈরি করে লার্গোডিয়া স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সবার সঙ্গে আলোচনা করেও ব্যর্থ হন। তিনি আশা ছাড়েননি। পরবর্তীকালে তার ছোট ভাই রায়হান মাহমুদ লার্গোডিয়া স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের গর্ভনর নির্বাচিত হলে তার হাতে শহীদ মিনার নির্মাণের গুরুত্ব তুলে ধরা সম্বলিত সেই প্রোফাইল এবং শহীদ মিনারের নকশা তুলে দেন। রায়হান মাহমুদ লার্গোডিয়া কমিনিউটি কলেজে লার্গোডিয়া স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের কাছে বিলটি নতুন করে প্রস্তাব করেন।

এ বিষয়ে রায়হান জানান, আমি যখন লার্গোডিয়া স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের গর্ভনর হই তখন যুক্তরাষ্ট্র শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হাসানের সঙ্গে আলোচনা করেছিলাম কিভাবে কলেজে একটি শহীদ মিনার স্থাপন করা যায়। এরই ধারাবাহিকতায় লার্গোডিয়া কলেজের স্টুডেন্ট গর্ভনরদের দীর্ঘদিন আলোচনার পরে আমি শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য প্রস্তাবটি স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের নিকট পেশ করি।

পরে ১২ জন গভর্নরের ৮ জন ওই প্রস্তাবে সম্মতি জানায় এবং গত ২৫ জানুয়ারি বিলটি স্টুডেন্ট গভর্মেন্টে পাশ হয়। অ্যাসোসিয়েশনের যে ৮ জন প্রস্তাবিত বিলে সম্মতি দিয়েছেন তারা হলেন- ফজলে রাব্বি, শেখ হাফিজ, জয়ি ফার্নান্ডেজ, ইয়ং জো, ইয়ংগরু জিয়াও, জিয়ায়ন লি ও ইয়াইউ ঝাউ।

এরই মধ্যে শহীদ মিনার স্থাপনের জন্য খরচ বাবদ ৮ হাজার ডলার স্টুডেন্ট গভর্মেন্ট অ্যাসোসিয়েশন থেকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। শহীদ মিনারটি লার্গোডিয়া কমিউনিটি কলেজের ‘ই’ বিল্ডিং এবং ‘এম’ বিল্ডিংয়ের মাঝে খোলা চত্বরে ১০ ফুট বাই ১০ ফুট সাইজের করা হবে বলে জানা গেছে।

বিএ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :