লাল সবুজের পতাকা হাতে শততম ম্যারাথনে শিব শংকর

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:০৯ পিএম, ০৭ নভেম্বর ২০১৮

বিশ্বের সবচেয়ে বড় দৌড় প্রতিযোগিতা নিউইয়র্ক ম্যারাথনে অংশ নিয়েছেন জার্মানপ্রবাসী বাংলাদেশি দৌড়বিদ শিব শংকর পাল। সম্প্রতি নিউইয়র্কের স্ট্যাটেন আইল্যান্ড থেকে এ ম্যারাথন শুরু হয়। ব্রুকলিন, কুইন্স, ব্রঙ্কস, ম্যানহাটনের প্রায় সাড়ে ২৬ মাইল সড়ক পদক্ষিণ শেষে সিটির সেন্ট্রাল পার্কে গিয়ে শেষ হয়।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় এ ম্যারাথন নিউইয়র্ক ম্যারাথনে এ বছর প্রায় ৭৫ হাজার প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। জানা গেছে, শিব শংকর পাল এই ম্যারাথনে একমাত্র বাংলাদেশি দৌড়বিদ হিসেবে অংশগ্রহণ করেন।

এটি ক্যারিয়ারের শততম আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে অংশগ্রহণ জার্মানির মিউনিখপ্রবাসী শিব শংকর পালের। নিউইয়র্ক ম্যারাথনের মধ্যে দিয়ে ১০০টি আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে লাল-সবুজ পতাকা নিয়ে দৌড়ালেন জার্মানিপ্রবাসী এই বাংলাদেশি।

শিব শংকর পাল জানান, ম্যারাথনের মাধ্যমে বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশকে পরিচিত করানোই তার প্রধান লক্ষ্য। কঠোর পরিশ্রম এবং স্বপ্নই তাকে এই পর্যায়ে নিয়ে এসেছে।

শিভ শংকর পাল ১৯৬৫ সালে ঢাকার নবাবগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। গ্রামের স্কুলে শিক্ষাজীবন শুরু করে নটর ডেম কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৮৯ সালে কর্মসংস্থানের উদ্দেশে জার্মানি পাড়ি জমান।

পরবর্তীতে জার্মান ভাষা শিখে বৈদ্যুতিক কাজের ওপর ডিপ্লোমা নেন এবং ১৯৯৯ সালে জার্মানির মিউনিখে নিজে পাল ইলেক্ট্রো নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। ২০১৭ সালে জার্মানির মিউনিখ শহর কর্তৃপক্ষ পাঁচজন সফল ব্যবসায়ীকে বিশেষ পুরস্কারে ভূষিত করে। সে বছর পুরস্কার প্রাপ্ত পাঁচজন সফল ব্যবসায়ীর একজন বাংলাদেশি শিব শংকর পাল।

মিউনিখের টাউন হল অডিটোরিয়ামে মেয়র জোসেফ স্মিথ জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিব শংকর পালের হাতে পুরুস্কার তুলে দেন।

জার্মানিপ্রবাসী সফল এই দৌড়বিদ এবং ব্যবসায়ী মিউনিখে স্ত্রী শিখা শংকর পাল, দুই ছেলে ম্যাক্সিমিলিয়ান ও দিব্য আর মেয়ে ত্রয়ীকে নিয়ে বসবাস করেন।

হাবিবুল্লাহ আল বাহার, জার্মানি থেকে/এমআরএম/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]