লকডাউনে নতুন প্রজন্মের কেউ এমন করেও ভাবছে

রহমান মৃধা
রহমান মৃধা রহমান মৃধা
প্রকাশিত: ০১:১৬ এএম, ০১ জুন ২০২১

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে গোটা বিশ্বের যেমন বড় আকারে ক্ষতি হয়েছে তেমনি উন্নতির ধারারও যথেষ্ট ব্যাঘাত ঘটেছে। বিশেষ করে নতুন প্রজন্মের ক্ষতি হয়েছে সবচেয়ে বেশি। জ্ঞানের চলমান গতিতে বাঁধা, তারপর সামাজিকতা বন্ধ এবং শেষে ডিজিটাল পদ্ধতিতে শিক্ষা প্রদান এবং তাও দীর্ঘদিন ধরে।

মানুষ সামাজিক জীব তাকে ঘরে বন্দি করে রাখা আর চিড়িয়াখানায় বন্যপশুদের আটকে রাখা একই কথা। সুইডেন একমাত্র দেশ চেষ্টা করেছে ব্যতিক্রমভাবে সমস্যার মোকাবিলা করতে। খুব একটা ভালো ফলাফল বহন করতে না পারলেও শিক্ষা প্রশিক্ষণ চালু রাখতে চেষ্টা করেছে।

মানসিক দিক দিয়ে অনেকেই কিছুটা ভারসাম্য হারিয়ে ফেলছে। এ ক্ষতি পূরণ হতে সময় লাগবে। এত কিছুর পরও ব্যতিক্রম কিছু রয়েছে এবং সেটা বাংলাদেশে ঘটে চলছে। ছেলেটিকে আমি চোখে দেখিনি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের তার সঙ্গে আমার পরিচয়।

আমার লেখা বা ছোট খাটো ভিডিও ফেসবুক বা খবরের কাগজে সে দেখেছে। সেভাবেই পরিচয়, আমি চেষ্টা করি নতুন প্রজন্মদের নানাভাবে অনুপ্রেরণা দিতে। ছেলেটির বয়স সবে শতরে। আর দশজনের মতো সময়টি সেও পার করতে পারত, কিন্ত না সে কিছুটা ভিন্নভাবে ডিজিটালকে কাজে লাগিয়েছে।

হয়ত সঠিক বা ইউনিক কিছু উদ্ভাবন করতে পারেনি তবে কিভাবে নতুন চিন্তা চেতনার উদয় হলে তার জন্য গুগলে রিসার্স করে সে তথ্য জোগাড় করা যায় এবং সারমর্মে উপনীত হওয়া সম্ভব তা সে প্রমাণ করেছে। আমাকে সে প্রায়ই বিভিন্ন বিষয়ে লেখে।

সোনার বাংলায় গোলাম সারওয়ার সাইমুমের মতো আরও অনেক প্রতীভা রয়েছে যা আমরা জানি না। একটু সহানুভূতি পেলে তারাও যে একদিন নোবেল পুরস্কার পেতে পারে এমনটি স্বপ্ন দেখতে ক্ষতি কী? তার চিঠিখানা হুবহু তুলে ধরলাম শেয়ার ভ্যালুর কনসেপ্ট থেকে।

স্যার,

আপনাকে কথা দিয়েছিলাম যে চোখ নিয়ে করা ওই গবেষণায় কী হয় সেটা আগে আপনাকে লিখে পাঠাব। এখানে সেটাই করছি। আমি চোখ দিয়ে ছোট্ট ছোট্ট উজ্জ্বল বিন্দু স্বরূপ বস্তুকে চলাচল করতে দেখতাম। এগুলো দেখতাম মহামারির অনেক আগে থেকেই।

এসব সম্পর্কে বিশেষ কোনো উত্তর ছিল না আমার কাছে কিন্তু প্রশ্ন ছিল অনেক। এখন করোনা মহামারিতে স্কুল কলেজ বন্ধ হওয়ার পর এটা নিয়ে পূর্ণাঙ্গ গবেষণা করার সময় পাই। আসলে এই দীর্ঘ ছুটিতে অনেক কিছু ইচ্ছা পূরণ হয় যেগুলো (গোল্ডেন এ প্লাস পেতেই হবে এমন) লেখাপড়ার চাপে আগে পূরণ হয়নি।

যেমন আপনাকে আগে পাঠানো লেখাগুলো লেখার সুযোগ পেয়েছি। সে রকমই একটা লুকিয়ে থাকা ইচ্ছা ছিল বিশিষ্ট বিজ্ঞানীদের লেখা বই পড়া। একদিন স্টিফেন হকিংয়ের এক বইয়ে ‘কোয়ান্টাম মেকানিক্স’ এ ‘ফোটন’ কণার বৈশিষ্ট্যের বর্ণনা পড়ি যা আমার চোখে দেখা ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কণার বৈশিষ্ট্যের সাথে মিলে যায়। যদিওবা এটা আমার ভুল ভাবনাই ছিল।

মূলত এটাই আমার মনে আগ্রহ বাড়ায় ওগুলো নিয়ে আরও চিন্তা-ভাবনা করার জন্য আর এখান থেকেই চোখে দেখা কণাগুলো নিয়ে আমার গবেষণা ভুল দিকে হাঁটতে থাকে। আমি কোয়ান্টাম মেকানিক্স, পার্টিকেল ফিজিক্স এবং অন্যান্য এ রকম ক্ষুদ্র কণা নিয়ে লেখা বইগুলো পড়তে থাকি।

কিন্তু ওগুলোর অধিকাংশ বিষয় আমার বুঝতে অসুবিধা হয়েছে। কারণ স্বাভাবিকভাবেই ওগুলো আমার জ্ঞানের বাইরের বিষয়। ৩০ মে আমার ১৭ বছর পূর্ণ হয়েছে। এই বয়সে এসব বই কল্পনা করাই আমার জন্য অনেক কঠিন বিষয়। এসব বইয়ে আমি যে বিষয়গুলোর উত্তর খুঁজছি সেগুলোর কিছুই পেলাম না।

তাই বাধ্য হয়ে আবার ইন্টারনেট এ প্রশ্নোত্তর এর খোঁজ শুরু করলাম। এবার চোখের সমস্যা সম্পর্কে জানতে চেষ্টা করলাম। এবার চোখের সমস্যা নিয়ে লেখা অনেক আর্টিকেল পড়লাম। রেটিনাসহ চক্ষু বিজ্ঞানের বিভিন্ন বই পড়লাম। এটার ফলে আশ্বস্ত হলাম যে আমার বড় কোনো চোখের সমস্যা নাই।

চোখের গঠন, লেন্সের বৈশিষ্ট্য ও কাজ পড়ার মাধ্যমে অবাস্তব প্রতিবিম্বের (or Unreal Projection) মতো কিভাবে আমি ওগুলো আকাশে দেখতে পাই সেই বিষয়ে অনেকগুলো আন্দাজ চলে এলো।

একদিন আমেরিকার ‘ইউনিভার্সিটি অব ইলিনৈস’ এর ওয়েবসাইট খুঁজে পেলাম এবং দেখলাম আমার মতই আরো ২৭ জন ব্যক্তি বিভিন্ন দেশ থেকে একই অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছেন এবং এর সঠিক উত্তর চেয়েছেন। এক জায়গায় উত্তর হিসেবে ‘‘Blue field entoptic phenomenon’’ এর কথা বলা হয়েছে।

এবার এটা নিয়েও গবেষণা শুরু করলাম। আগে স্টিফেন হকিংয়ের কথাগুলো মাথায় গেঁথে যাওয়ায় সহজে এই সঠিক গবেষণাটিকে গ্রহণ করতে পারিনি। ভুলটা আমারই ছিল। তিনি বলেছেন অন্য কথা আর আমি বুঝে ফেলেছি অন্য কথা। শেষে অনেক কষ্টের পর নিজে অনেক পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ‘‘Blue Field Entoptic phenomenon’’

বিষয়টিকেই আবার নতুনভাবে প্রমাণ করলাম নিজের কাছে। ‘আমার চোখে দেখা ওই ছোট্ট উজ্জ্বল কণাগুলো হচ্ছে শেত রক্তকণিকা। ওগুলোর অবস্থান হচ্ছে রেটিনার সামনে। ওগুলো কৈশিক নালিকার ভেতর দিয়ে চলাচল করছে।’

মূল কথা হচ্ছে শুরুতে ভুল করে বিষয় একটা মাথায় গেঁথে যাওয়ার কারণে অনেক কষ্ট করে আগে করা একটা বৈজ্ঞানিক গবেষণা আবার নতুন করে নতুন পদ্ধতিতে প্রমাণ করলাম নিজের কাছে। যদিও বা এটার কোনো মানে নেই কারণ আগেই একজন এটা নিয়ে গবেষণা সেরে ফেলেছেন। কিন্তু আমার এতে দুঃখ নেই বললেই চলে কারণ এতে আমি নতুন অনেক কিছু শিখতে পেরেছি।

‘স্যার, অনেক সংক্ষিপ্ত করে বললাম কিন্তু এখানে লুকিয়ে আছে আমার দীর্ঘ সময়ের কঠোর পরিশ্রম পূর্ণাঙ্গ ঘটনাগুলো এর থেকে আরো অনেক বিস্তৃত’

এখানে আমার পিতা-মাতার কথা বলতেই হচ্ছে। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে এ রকম পিতা-মাতা পেয়েছি। আমাদের পরিবার আগে অনেকগুলো ধনী পরিবারগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল। কিন্তু বিভিন্নভাবে ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়ার কারণে আমাদের পারিবারিক অর্থনীতি ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়ে।

আল্লাহ চাইলে হয়তো বেশি দিন লাগবে না আবার স্বাভাবিক হতে। কিন্তু এত কিছুর পরেও আমার পিতা-মাতা শিক্ষার ক্ষেত্রে আপস করতে রাজি নন। আমার লেখারপড়া জন্য ধার-দেনা করতেও দ্বিধা করেননি। যে মোবাইলের সাহায্যে আমি এত কিছু শিখতে পেরেছি বা পারছি পরবর্তীতে জানতে পারি সেই টাকা নাকি ধার করা।

জানি না আমার বই কেনার টাকাগুলো কিভাবে জোগাড় করেছেন তারা। কষ্ট লাগে কিন্তু কিছুই করতে পারি না। তারা সাপোর্ট না দিলে এসবের কোনো কিছুই হয়তো সম্ভব হত না। ‘এখানে অনেক কথা লুকিয়েছি কারণ সব বলার মতো না’

The things I could confirm by my research are:
1. Those tiny flashy things are not floaters caused by posterior vitreous detachment.
2. These are not air molecules.
3. First I thought only I see this. But now, I could find other people from around the world who also witness the same thing.
4. These things have connections with retina, lens and brain's complex visual processing system.
5. These are inside my eyes but I see them in the sky because of an unreal projection created by the lenses and brain's complex visual processing system.
6. Blue field entoptic phenomenon theory is absolutely correct. Those tiny flashy things I see are caused by White blood cells. Their trajectories in front of the retina causes this. Those white blood cells move through the capillaries.

‘স্যার, খুব দ্রুত লেখাগুলো লিখলাম। অনেক ভুল হয়ে থাকতে পারে। আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

‘‘Sir, originally I am sending this email to you as a personal message. But if you wish you can use this information for publication purposes.’’

Md Golam Sharoar Saymum, Student, Rangpur Government College, Rangpur.

সাইমুমের পুরো লেখাটি তুলে ধরলাম শুধুমাত্র সবার অবগতির জন্য। কারণ সাইমুমের বয়সে তার ভাবনাকে যদি সে বাস্তবে রূপ দিতে পারে তবে করোনা যে শুধু অভিশাপ বয়ে এনেছিল সেটাই পরের প্রজন্ম জানবে না। তারা জানবে সাইমুমের অক্লান্ত কষ্ট এবং ত্যাগের বিনিময়ে জন্মেছিল বৈজ্ঞানিক চিন্তা।

এখানেই শেষ নয় জাগো বাংলাদেশ জাগো, নতুন করে ভাবো। সাইমুমের মতো তোমাদের মাঝে নতুন চেতনার বন্যা বইয়ে দিক। তোমরাও একদিন অনেক বড় হও আর তোমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্যে সাইমুমের মতো করে এমনি আশার বাণী লিখে রেখে যাও।

এমআরএম

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

২৬,৮০,৫৮,৮১২
আক্রান্ত

৫২,৯৪,৩৬৮
মৃত

২৪,১২,৫৮,৬৪৮
সুস্থ

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ
বাংলাদেশ ১৫,৭৮,২৮৮ ২৮,০১৬ ১৫,৪৩,২০৪
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৫,০৪,০৬,৯৬৮ ৮,১৩,৭৯৮ ৩,৯৮,০০,৫৮১
ভারত ৩,৪৬,৬৫,০৯৬ ৪,৭৩,৯৫২ ৩,৪০,৮৯,১৩৭
ব্রাজিল ২,২১,৬৭,৭৮১ ৬,১৬,২৯৮ ২,১৩,৯৯,৩১৬
যুক্তরাজ্য ১,০৬,১০,৯৫৮ ১,৪৫,৯৮৭ ৯৩,৪০,৩৯০
রাশিয়া ৯৮,৯৫,৫৯৭ ২,৮৪,৮২৩ ৮৬,০২,০৬৭
তুরস্ক ৮৯,৬৪,৭১১ ৭৮,৪০৭ ৮৫,১৬,৫২২
ফ্রান্স ৮০,৪৮,৯৩১ ১,২০,০৩২ ৭২,৩১,৪২৫
জার্মানি ৬৩,৩৯,৫৯৩ ১,০৪,৯৩২ ৫২,২৫,৭০০
১০ ইরান ৬১,৪৪,৬৪৪ ১,৩০,৪৪৬ ৫৯,৪৩,৪৬৭
১১ আর্জেন্টিনা ৫৩,৪৮,১২৩ ১,১৬,৭০৮ ৫২,০৬,৯১১
১২ স্পেন ৫২,৪৬,৭৬৬ ৮৮,২৩৭ ৪৯,৩৭,৪০২
১৩ ইতালি ৫১,৫২,২৬৪ ১,৩৪,৪৭২ ৪৭,৬৮,৫৭৮
১৪ কলম্বিয়া ৫০,৮৬,৩৮১ ১,২৮,৯২৯ ৪৯,২৭,১০৪
১৫ ইন্দোনেশিয়া ৪২,৫৮,৩৪০ ১,৪৩,৯০৯ ৪১,০৯,০৬৮
১৬ মেক্সিকো ৩৯,০৫,৩১৯ ২,৯৫,৬০১ ৩২,৬২,৪২২
১৭ পোল্যান্ড ৩৭,৩২,৫৮৯ ৮৬,৭৯৬ ৩১,৯৪,৭৩১
১৮ ইউক্রেন ৩৫,১৯,৯৮১ ৮৯,৪৩৬ ৩১,০৯,৪২৩
১৯ দক্ষিণ আফ্রিকা ৩০,৭১,০৬৪ ৯০,০৩৮ ২৮,৬৭,৯৬৬
২০ ফিলিপাইন ২৮,৩৫,৫৯৩ ৪৯,৭৬১ ২৭,৭৩,৩২২
২১ নেদারল্যান্ডস ২৮,০৮,৮৯২ ১৯,৮৪২ ২১,৯৩,০৪৪
২২ মালয়েশিয়া ২৬,৭৩,০১৯ ৩০,৭৪৬ ২৫,৮১,৩৯৫
২৩ চেক প্রজাতন্ত্র ২২,৮২,২১২ ৩৪,০৩৪ ১৯,৬৩,৪৫৫
২৪ পেরু ২২,৪৬,৬৩৩ ২,০১,৪৫০ ১৭,২০,৬৬৫
২৫ থাইল্যান্ড ২১,৫২,৩৮৪ ২১,০৩৩ ২০,৬৭,১৪৯
২৬ ইরাক ২০,৮৬,১৯২ ২৩,৯৩১ ২০,৫২,৬৫৬
২৭ বেলজিয়াম ১৮,৭৯,৭৮৪ ২৭,৩৬০ ১৩,৯৫,৩৫৯
২৮ কানাডা ১৮,১৮,৭৪২ ২৯,৮৫২ ১৭,৫৮,৯৮০
২৯ রোমানিয়া ১৭,৮৯,৫৩৯ ৫৭,৩৬০ ১৭,০৭,৯৬৮
৩০ চিলি ১৭,৭৬,৫৯৯ ৩৮,৫৪১ ১৬,৭২,৯০৭
৩১ জাপান ১৭,২৮,১১৩ ১৮,৩৬৭ ১৭,০৮,৯২৪
৩২ ভিয়েতনাম ১৩,৫২,১২২ ২৬,৯৩০ ১০,৩৬,৩৯৩
৩৩ ইসরায়েল ১৩,৪৮,২২৯ ৮,২১০ ১৩,৩৪,১১৮
৩৪ পাকিস্তান ১২,৮৭,৭০৩ ২৮,৭৯৩ ১২,৪৭,০৬৬
৩৫ সার্বিয়া ১২,৬৮,৭৮৭ ১২,০৩৬ ১২,১৮,৯৮১
৩৬ সুইডেন ১২,২২,৮৯২ ১৫,১৫১ ১১,৬৪,০১৯
৩৭ অস্ট্রিয়া ১২,১২,৯৯৯ ১২,৯৭৯ ১১,০৯,৯৭২
৩৮ পর্তুগাল ১১,৭৭,৭০৬ ১৮,৫৮৭ ১০,৯৬,২৮৫
৩৯ হাঙ্গেরি ১১,৬৮,৭২৮ ৩৬,০৪৮ ৯,৪৮,৩৮৫
৪০ সুইজারল্যান্ড ১০,৮৫,৬৭৭ ১১,৭১৮ ৮,৭৯,৬৯৩
৪১ জর্ডান ৯,৯৩,৩৩৯ ১১,৮৫০ ৯,১৬,৪০৬
৪২ গ্রীস ৯,৮৪,৩০১ ১৮,৯০১ ৮,৯৬,০০৯
৪৩ কাজাখস্তান ৯,৭৭,০৩১ ১২,৮০২ ৯,৪৪,৪৮৫
৪৪ কিউবা ৯,৬৩,৩৪৭ ৮,৩১১ ৯,৫৪,৫৭২
৪৫ মরক্কো ৯,৫০,৯৪৬ ১৪,৭৯২ ৯,৩৩,৬৫৮
৪৬ জর্জিয়া ৮,৭৫,৮০৬ ১২,৫১৯ ৮,১৭,৯৬৩
৪৭ নেপাল ৮,২৩,৩৫৭ ১১,৫৪৭ ৮,০৫,৫৭১
৪৮ স্লোভাকিয়া ৭,৪৮,৯৬৯ ১৫,০৯৫ ৬,১৬,৭৩৪
৪৯ সংযুক্ত আরব আমিরাত ৭,৪২,৫০৭ ২,১৪৯ ৭,৩৭,৫৭০
৫০ তিউনিশিয়া ৭,১৮,৮৬৬ ২৫,৪১৩ ৬,৯২,০৬৮
৫১ বুলগেরিয়া ৭,০৯,৫৩৭ ২৯,২৭৯ ৫,৮১,৭৪৯
৫২ লেবানন ৬,৮৩,৩২৬ ৮,৮০৪ ৬,৩৮,০৬৫
৫৩ বেলারুশ ৬,৬৭,৮৯৩ ৫,২১০ ৬,৫৭,১০৯
৫৪ ক্রোয়েশিয়া ৬,৩৯,৭৭৮ ১১,৩৮৩ ৬,০১,১৭৪
৫৫ গুয়াতেমালা ৬,২০,৮৫৩ ১৬,০০৮ ৬,০৩,৭৫৬
৫৬ আয়ারল্যান্ড ৬,০৬,৮৫২ ৫,৭৮৮ ৪,৬৮,৫৯৩
৫৭ আজারবাইজান ৫,৯৯,৭১৩ ৮,০১৯ ৫,৬৯,২৩৮
৫৮ শ্রীলংকা ৫,৬৯,৯২৮ ১৪,৫৩৩ ৫,৪৩,৪৬৭
৫৯ কোস্টারিকা ৫,৬৭,৭০৬ ৭,৩২৪ ৫,৫৬,৭৮১
৬০ সৌদি আরব ৫,৫০,০৪৩ ৮,৮৪৯ ৫,৩৯,২০৫
৬১ বলিভিয়া ৫,৪৬,১৫৫ ১৯,২৬৪ ৪,৯৯,৫৬৪
৬২ ইকুয়েডর ৫,৩০,১২৬ ৩৩,৪৯৪ ৪,৪৩,৮৮০
৬৩ ডেনমার্ক ৫,২৯,২১০ ২,৯৭২ ৪,৫৯,৪৬২
৬৪ মায়ানমার ৫,২৫,৪০৩ ১৯,১৫৭ ৫,০১,৫২০
৬৫ দক্ষিণ কোরিয়া ৪,৮৯,৪৮৪ ৪,০২০ ৪,১৩,৭৪০
৬৬ লিথুনিয়া ৪,৮৪,৫৩৭ ৬,৯০১ ৪,৪৯,৪২৪
৬৭ পানামা ৪,৭৯,৫৬৩ ৭,৩৭৯ ৪,৬৯,১৮৯
৬৮ প্যারাগুয়ে ৪,৬৩,৫২২ ১৬,৪৮৮ ৪,৪৬,৩৭২
৬৯ ভেনেজুয়েলা ৪,৩৫,৮২৫ ৫,২০৮ ৪,২৩,২৯৩
৭০ স্লোভেনিয়া ৪,৩৪,৬৭৯ ৫,৩৫৪ ৪,০৩,৩৩১
৭১ ফিলিস্তিন ৪,৩২,৯২১ ৪,৫৫৮ ৪,২৪,৭৫৪
৭২ কুয়েত ৪,১৩,৫৮৮ ২,৪৬৬ ৪,১০,৭৮৬
৭৩ ডোমিনিকান আইল্যান্ড ৪,০৯,২৩২ ৪,২১২ ৪,০৩,৪১৩
৭৪ উরুগুয়ে ৪,০১,৬৪০ ৬,১৩৮ ৩,৯৩,২৫৮
৭৫ মঙ্গোলিয়া ৩,৮৪,২৮৮ ২,০২৩ ৩,১৩,২৫৬
৭৬ হন্ডুরাস ৩,৭৮,৩৯৭ ১০,৪১৬ ১,২২,৩৭৪
৭৭ লিবিয়া ৩,৭৬,৩৭৮ ৫,৫১৮ ৩,৫৯,৭৩৩
৭৮ ইথিওপিয়া ৩,৭২,৫৮৮ ৬,৮১৬ ৩,৪৯,৯৭৮
৭৯ মলদোভা ৩,৬৭,৯৪৮ ৯,২৯৩ ৩,৬৩,৭৭৪
৮০ মিসর ৩,৬৫,৮৩১ ২০,৮৭৭ ৩,০৪,১৫৬
৮১ আর্মেনিয়া ৩,৪১,৪৬৮ ৭,৭২৮ ৩,২২,৮১৪
৮২ ওমান ৩,০৪,৬৫৪ ৪,১১৩ ৩,০০,০৫৭
৮৩ নরওয়ে ৩,০০,০১৩ ১,১৩৪ ৮৮,৯৫২
৮৪ বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ২,৭৯,৮২০ ১২,৮৫৪ ১৩,৪৯,৯৫৬
৮৫ বাহরাইন ২,৭৭,৯৩৫ ১,৩৯৪ ২,৭৬,১৯৪
৮৬ সিঙ্গাপুর ২,৭১,২৯৭ ৭৭১ ২,৬২,৭৫১
৮৭ লাটভিয়া ২,৫৯,২১৫ ৪,৩২৫ ২,৪৩,৭৫১
৮৮ কেনিয়া ২,৫৫,৬৫২ ৫,৩৩৭ ২,৪৮,৪৭৩
৮৯ কাতার ২,৪৪,৭০৮ ৬১১ ২,৪১,৭৯৭
৯০ এস্তোনিয়া ২,২৬,৩০৪ ১,৮৩৬ ২,১০,২১৩
৯১ অস্ট্রেলিয়া ২,২২,২৬০ ২,০৭২ ২,০২,১৫৯
৯২ উত্তর ম্যাসেডোনিয়া ২,১৮,১৯৪ ৭,৬৮৮ ২,০৪,৬৮৫
৯৩ নাইজেরিয়া ২,১৫,১৬৪ ২,৯৮০ ২,০৭,৫২০
৯৪ আলজেরিয়া ২,১২,০৪৭ ৬,১২২ ১,৪৫,৬৭৭
৯৫ জাম্বিয়া ২,১০,৪৩৬ ৩,৬৬৮ ২,০৬,৫০১
৯৬ আলবেনিয়া ২,০২,৬৪১ ৩,১২৬ ১,৯৩,৫৩৩
৯৭ ফিনল্যাণ্ড ১,৯৭,৪৭৬ ১,৩৯৫ ৪৬,০০০
৯৮ বতসোয়ানা ১,৯৫,৫৫২ ২,৪২০ ১,৯২,৪৫২
৯৯ উজবেকিস্তান ১,৯৪,৯০৪ ১,৪২৫ ১,৯১,৬০২
১০০ কিরগিজস্তান ১,৮৩,৭৪৪ ২,৭৬২ ১,৭৮,৭৭৭
১০১ মন্টিনিগ্রো ১,৫৯,০৩৪ ২,৩৩৬ ১,৫৪,৪৯৫
১০২ আফগানিস্তান ১,৫৭,৫৪২ ৭,৩৬৫ ১,৪১,৪৯০
১০৩ মোজাম্বিক ১,৫২,৩২৬ ১,৯৪১ ১,৫১,৩৮২
১০৪ জিম্বাবুয়ে ১,৫০,৬২৮ ৪,৭২০ ১,২৯,০৯৫
১০৫ সাইপ্রাস ১,৩৮,৭৩৩ ৬০৫ ১,২৪,৩৭০
১০৬ ঘানা ১,৩১,২৪৬ ১,২২৮ ১,২৯,৩২৬
১০৭ নামিবিয়া ১,৩০,০৫১ ৩,৫৭৪ ১,২৫,৫৪০
১০৮ উগান্ডা ১,২৭,৭৫৫ ৩,২৬১ ৯৭,৮৪৭
১০৯ কম্বোডিয়া ১,২০,৩০০ ২,৯৭১ ১,১৬,৬৫৫
১১০ এল সালভাদর ১,১৯,৮০৩ ৩,৭৯০ ১,০২,৯৮২
১১১ ক্যামেরুন ১,০৭,৫৪৯ ১,৮২৩ ১,০২,৭১৬
১১২ রুয়ান্ডা ১,০০,৪৬৪ ১,৩৪৪ ৪৫,৫২২
১১৩ চীন ৯৯,৩৭১ ৪,৬৩৬ ৯৩,৬০২
১১৪ মালদ্বীপ ৯২,৬২৯ ২৫৫ ৯০,৪৮৫
১১৫ লুক্সেমবার্গ ৯২,৫৭৪ ৮৮৯ ৮৫,৯৫৮
১১৬ জ্যামাইকা ৯১,৫৭৮ ২,৪১৫ ৬৩,২৬০
১১৭ লাওস ৮৩,২৯১ ২১৯ ৭,৩৩৯
১১৮ ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ৭৭,৪৮২ ২,৩২০ ৬১,৯৩১
১১৯ সেনেগাল ৭৪,০৪৩ ১,৮৮৬ ৭২,১২০
১২০ অ্যাঙ্গোলা ৬৫,৩৩২ ১,৭৩৫ ৬৩,৩৭৩
১২১ রিইউনিয়ন ৬৩,৮৬৩ ৩৯১ ৫৯,৬৮৫
১২২ মালাউই ৬২,০৫৩ ২,৩০৭ ৫৮,৮২৬
১২৩ আইভরি কোস্ট ৬১,৮৫৭ ৭০৬ ৬০,৯০৯
১২৪ ড্যানিশ রিফিউজি কাউন্সিল ৫৯,১৭৫ ১,১১৩ ৫০,৯৩০
১২৫ গুয়াদেলৌপ ৫৫,২৮৪ ৭৪৮ ২,২৫০
১২৬ ফিজি ৫২,৫৬৭ ৬৯৭ ৫১,১৪১
১২৭ সুরিনাম ৫১,০৮৩ ১,১৭৫ ২৯,৫৮৩
১২৮ ইসওয়াতিনি ৪৯,২৫৩ ১,২৪৮ ৪৫,২৯৬
১২৯ সিরিয়া ৪৮,৯০১ ২,৭৯৩ ৩০,০৭০
১৩০ ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়া ৪৬,৩৩২ ৬৩৬ ৩৩,৫০০
১৩১ ফ্রেঞ্চ গায়ানা ৪৬,৩০৪ ৩৩১ ১১,২৫৪
১৩২ মার্টিনিক ৪৫,৫০১ ৭১৮ ১০৪
১৩৩ মাদাগাস্কার ৪৪,৮০০ ৯৭২ ৪৩,১১৯
১৩৪ সুদান ৪৪,৪০৬ ৩,২০১ ৩৬,০০৯
১৩৫ মালটা ৪০,১৮৮ ৪৬৮ ৩৭,৯৪৫
১৩৬ মৌরিতানিয়া ৩৯,৬৬৯ ৮৪৪ ৩৮,১২৪
১৩৭ কেপ ভার্দে ৩৮,৪৭০ ৩৫১ ৩৭,৯৯৫
১৩৮ গায়ানা ৩৮,৩৩৩ ১,০০৯ ৩৬,৩৬২
১৩৯ গ্যাবন ৩৭,৫৫১ ২৮১ ৩৩,৭৬১
১৪০ পাপুয়া নিউ গিনি ৩৫,৭০২ ৫৭৩ ৩৪,৭১১
১৪১ বেলিজ ৩০,৮৮৮ ৫৮২ ২৯,৩৪২
১৪২ গিনি ৩০,৭৯৮ ৩৮৮ ২৯,৭৫৩
১৪৩ বার্বাডোস ২৬,৪৩৩ ২৪৪ ২৩,৮৩৪
১৪৪ টোগো ২৬,৩৫০ ২৪৩ ২৫,৯৩৪
১৪৫ তানজানিয়া ২৬,৩০৯ ৭৩৪ ১৮৩
১৪৬ হাইতি ২৫,৬৯১ ৭৫৪ ২১,৮৮৫
১৪৭ বেনিন ২৪,৮৬৩ ১৬১ ২৪,৫৪৬
১৪৮ সিসিলি ২৩,৫৩৭ ১২৭ ২২,৯১২
১৪৯ সোমালিয়া ২৩,০৫১ ১,৩৩১ ১২,৩২৫
১৫০ বাহামা ২২,৮৪৬ ৭০৫ ২১,৬৪৪
১৫১ মরিশাস ২২,৩১০ ৪৫৫ ২০,৫৫৯
১৫২ লেসোথো ২১,৮৩৮ ৬৬৩ ১৩,৭৪১
১৫৩ মায়োত্তে ২১,০৪৩ ১৮৫ ২,৯৬৪
১৫৪ বুরুন্ডি ২০,৫২৩ ৩৮ ৭৭৩
১৫৫ পূর্ব তিমুর ১৯,৮২৯ ১২২ ১৯,৭০২
১৫৬ চ্যানেল আইল্যান্ড ১৯,৭০৬ ১০৫ ১৭,৪২১
১৫৭ কঙ্গো ১৯,০৬৬ ৩৫৯ ১২,৪২১
১৫৮ আইসল্যান্ড ১৮,৮৯৬ ৩৫ ১৭,৫৩৮
১৫৯ এনডোরা ১৮,৮১৫ ১৩৩ ১৬,৫৮২
১৬০ মালি ১৮,২৫৩ ৬২১ ১৫,৩৬০
১৬১ কিউরাসাও ১৭,৫১৭ ১৮০ ১৭,২২৮
১৬২ নিকারাগুয়া ১৭,৩২৮ ২১০ ৪,২২৫
১৬৩ তাজিকিস্তান ১৭,০৯৫ ১২৪ ১৬,৯৬৬
১৬৪ তাইওয়ান ১৬,৬৮৮ ৮৪৮ ১৫,৬৫৮
১৬৫ আরুবা ১৬,৫০৫ ১৭৬ ১৬,১৩৬
১৬৬ বুর্কিনা ফাঁসো ১৬,৩৩৪ ২৯০ ১৫,৬০৪
১৬৭ ব্রুনাই ১৫,২৪৪ ৯৮ ১৫,০২৮
১৬৮ ইকোয়েটরিয়াল গিনি ১৩,৫৯৯ ১৭৫ ১৩,৩৪৬
১৬৯ জিবুতি ১৩,৫০৯ ১৮৮ ১৩,২৯৫
১৭০ সেন্ট লুসিয়া ১৩,০৬৭ ২৮৩ ১২,৬৮২
১৭১ দক্ষিণ সুদান ১২,৮৪২ ১৩৩ ১২,৫১৬
১৭২ নিউজিল্যান্ড ১২,৫১৬ ৪৪ ৬,০০৯
১৭৩ হংকং ১২,৪৭২ ২১৩ ১২,১৫৩
১৭৪ নিউ ক্যালেডোনিয়া ১২,৩২১ ২৮০ ১১,৮২৫
১৭৫ আইল অফ ম্যান ১২,২৩০ ৬৬ ১১,০৫৯
১৭৬ সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক ১১,৭৪২ ১০১ ৬,৮৫৯
১৭৭ ইয়েমেন ১০,০৪৭ ১,৯৫৬ ৬,৯২৮
১৭৮ গাম্বিয়া ৯,৯৯৮ ৩৪২ ৯,৬৪১
১৭৯ কেম্যান আইল্যান্ড ৭,৭২৪ ৪,০৭০
১৮০ ইরিত্রিয়া ৭,৫৩৩ ৬২ ৭,৩২২
১৮১ জিব্রাল্টার ৭,৪৩৬ ১০০ ৭,০৩২
১৮২ নাইজার ৭,১১৯ ২৬৫ ৬,৭৬১
১৮৩ গিনি বিসাউ ৬,৪৪৪ ১৪৯ ৬,২৭৯
১৮৪ সিয়েরা লিওন ৬,৪০৫ ১২১ ৪,৩৯৩
১৮৫ সান ম্যারিনো ৬,২১৭ ৯৪ ৫,৭৭২
১৮৬ ডোমিনিকা ৬,১৪২ ৪২ ৫,৭১২
১৮৭ লাইবেরিয়া ৫,৯১৫ ২৮৭ ৫,৫২৩
১৮৮ গ্রেনাডা ৫,৯১০ ২০০ ৫,৬৪৩
১৮৯ বারমুডা ৫,৭৬০ ১০৬ ৫,৬২৩
১৯০ চাদ ৫,৭০১ ১৮১ ৪,৮৭৪
১৯১ সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন আইল্যান্ড ৫,৬৪৫ ৭৬ ৫,০৯৬
১৯২ লিচেনস্টেইন ৫,০৫০ ৬৪ ৪,৬০০
১৯৩ সিন্ট মার্টেন ৪,৬১৩ ৭৫ ৪,৫০৯
১৯৪ কমোরস ৪,৫৫৪ ১৫১ ৪,৩২৪
১৯৫ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ৪,১৫১ ১১৭ ৪,০২২
১৯৬ ফারে আইল্যান্ড ৪,১৩৪ ১৩ ৩,৪৭২
১৯৭ মোনাকো ৩,৯৭৯ ৩৬ ৩,৭৬৬
১৯৮ সেন্ট মার্টিন ৩,৯৭৩ ৫৬ ১,৩৯৯
১৯৯ টার্কস্ ও কেইকোস আইল্যান্ড ৩,১০৭ ২৫ ৩,০৫৫
২০০ ক্যারিবিয়ান নেদারল্যান্ডস ৩,০৭৩ ২২ ৬,৪৪৫
২০১ ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ ২,৮১৬ ৩৮ ২,৬৪৯
২০২ সেন্ট কিটস ও নেভিস ২,৭৯১ ২৮ ২,৭৫৩
২০৩ ভুটান ২,৬৪২ ২,৬২৫
২০৪ গ্রীনল্যাণ্ড ১,৭৪৬ ১,৪৩১
২০৫ সেন্ট বারথেলিমি ১,৬০৩ ৪৬২
২০৬ এ্যাঙ্গুইলা ১,৪৬৯ ১,৩৮৩
২০৭ ডায়মন্ড প্রিন্সেস (প্রমোদ তরী) ৭১২ ১৩ ৬৯৯
২০৮ ওয়ালিস ও ফুটুনা ৪৫৪ ৪৩৮
২০৯ সেন্ট পিয়ের এন্ড মিকেলন ৯১ ৬০
২১০ ফকল্যান্ড আইল্যান্ড ৮৩ ৬৮
২১১ ম্যাকাও ৭৭ ৭৭
২১২ মন্টসেরাট ৪৪ ৪৩
২১৩ ভ্যাটিকান সিটি ২৭ ২৭
২১৪ সলোমান আইল্যান্ড ২০ ২০
২১৫ পশ্চিম সাহারা ১০
২১৬ জান্ডাম (জাহাজ)
২১৭ পালাও
২১৮ ভানুয়াতু
২১৯ মার্শাল আইল্যান্ড
২২০ সামোয়া
২২১ সেন্ট হেলেনা
২২২ টাঙ্গা
তথ্যসূত্র: চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন (সিএনএইচসি) ও অন্যান্য।
প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]