মক্কা-মদিনায় ৩০ লাখের বেশি মুসল্লির অংশগ্রহণে খতমে কুরআন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৪৯ পিএম, ০৩ জুন ২০১৯

পবিত্র রমজান মাসের ২৯তম রাতে (রোববার) খতমে কুরআন মোনাজাতে মক্কা-মদিনায় অংশগ্রহণ করেছেন ৩০ লাখেরও বেশি ধর্মপ্রাণ মুসল্লি।

রমজানের প্রথম দিন থেকে পবিত্র কোরআন শরীফ তেলাওয়াতের মাধ্যমে তারাবির নামাজ পড়ানো হয়। গতকাল রোববার রাতে তারাবির নামাজে কোরআন শরীফ তেলওয়াত শেষ হয়।

সোমবার সৌদি আরব থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক সৌদি গেজেট প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

কুরআন শরীফ খতম উপলক্ষে ওমরাহ হজ পালনকারী হাজী ও স্থানীয় (মক্কা-মদিনার) বাসিন্দারা অংশগ্রহণ করেন।

মক্কা ও মদিনার এ দুটি মসজিদের নেতৃত্ব দানকারী শীর্ষ নেতা শেখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস মোনাজাত পরিচালনা করেন। মক্কা ও মদিনা খতমে তারাবির নামাজে অংশগ্রহণ করেন ২০ লাখেরও বেশি ধর্মপ্রাণ মুসল্লি।

এ দুটি মসজিদে লোকে লোকারণ্য হয়। মসজিদে চৌহদ্দি পেরিয়ে মুসল্লিদের জমায়েত রাস্তা পর্যন্ত চলে যায়। মোনাজাতে শেখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস সমগ্র মুসলিম বিশ্বের নাগরিকদের বিপদ থেকে রক্ষা ও তাদের নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য গুরুত্বারোপ করেন।

মক্কা শরীফের প্রবেশের ১৭০টি দরজা শত শত নিরাপত্তারক্ষী নিয়োগ করা হয়। লাখ লাখ মুসল্লির সমাবেশ হলেও যানবাহন পরিচালনায় ট্রাফিক ব্যবস্থা ভালো থাকায় কোনো ট্রাফিক জ্যাম অথবা কোনো সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেনি।

মদিনার খতমে কুরআনের মোনাজাতে ১০ লাখেরও বেশি ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশগ্রহণ করে। তাদের মধ্যে ১০ হাজারেরও বেশি ধর্মপ্রাণ মুসল্লি এতেকাফে বসেন।

এমইউ/এনডিএস/এমএস