মুসলিমদের ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছে মিয়ানমারের বৌদ্ধ সম্প্রদায়!

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৫০ এএম, ০৮ জুন ২০১৯

বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ মিয়ানমার। গত ২ বছর ধরে বৌদ্ধদের নির্যাতনে জন্মভূমি ছেড়ে প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে অবস্থান করছে। অথচ এবার ঈদ-উল-ফিতরের দিন মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকদেরকে মিয়ানমারের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা শান্তির প্রতীক ‘সাদা গোলাপ’ দিয়ে জানিয়েছে ঈদের শুভেচ্ছা। খবর ডয়েচ ভেলে।

গত ৩ সপ্তাহ আগেও কট্টরপন্থী বৌদ্ধরা মুসলিমদের মসজিদে নামাজ পড়তে বাধা দিয়েছিল। এ ঘটনার পর পরই সান্দিতা নামের এক মধ্যপন্থী বৌদ্ধ ভিক্ষু মুসলিমদের ফুল দিয়ে জানানোর উদ্যোগ নেন বলে জানা যায়।

রোজার সময় মিয়ানমারের ২৩টি স্থানে মুসলিমদের মধ্যে প্রায় ১৫ হাজার ফুল বিতরণ করা হয়েছে। এ গোলাপ বিতরণ কর্মসূচির মাধ্যমে তারা মুসলিমদের ঘরে ঘরে শান্তির বার্তা দেয়ার চেষ্টা করছে।

তরুণ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী থেত সোয়ে উইন জানান, ‘শান্তির প্রতীক সাদা গোলাপ বিতরণে মাধ্যমে আমরা কট্টরপন্থী বৌদ্ধ জঙ্গিদের এ বার্তা জানাতে চাই যে, মিনয়ানমারের অধিকাংশ নাগরিক মুসলিম প্রতি এ নির্যাতন সমর্থন করে না।

মিয়ানমারের তরুণ মুসলিম তুন তুন সোয়ে বলেন, ‘নামাজ পড়তে বাধা দেয়ায় আমরা অত্যন্ত দুঃখ পেয়েছিলাম। বাকরুদ্ধ হয়েছিলাম। তবে এবার মুসলিমরা গোলাপ পেয়ে খুশি।

উল্লখ্য যে, ২০১৭ সাল থেকে মিয়ানমারে সৃষ্ট সহিংসতায় বাংলাদেশে পালিয়ে এসে উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় ৩০টি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে। এবারসহ তারা বাংলাদেশে ২ ঈদ-উল-ফিতর পালন করেছে।

মিয়ানমারের বৌদ্ধদের এ পদক্ষেপে মুসলিম সম্প্রদায়ের মাঝে ফিরে আসুক শান্তি ও সম্প্রীতি। শুরু হোক মুসলিমসহ মিয়ানমারের সব নাগরিক শান্তিময় সহাবস্থান ও পথচলা।

এমএমএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]