আবারও ভাগ হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা!

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩৫ এএম, ১১ জানুয়ারি ২০২০

টঙ্গীর তুরাগ তীরে তাবলিগ জামাতের ৫৫ তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে আলমি শুরার ইজতেমা চলছে। আগামী ১৭, ১৮ ও ১৯ জানুয়ারি দ্বিতীয় পর্বে অনুষ্ঠিত হবে সাদ কান্ধলভির অনুসারিদের ইজতেমা। এবার দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা অনুষ্ঠিত হওয়ার আগেই আগামী বছর থেকে শুধু আলমি শুরার সাথীদের ইজতেমায় দুই পর্বে ভাগ করার জোরাল দাবি উঠেছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোর তুলনায় এবারের বিশ্ব ইজতেমায় মুসল্লিদের অংশগ্রহণ অনেক বেশি। এ বছরের আলমি শুরার ইজতেমায় রেকর্ড সংখ্যক মুসল্লি উপস্থিত হয়েছে। টঙ্গীর ময়দানে আগত আলমির শুরার সাথীদের দাবি কার্যকর হলে আগামী বছর থেকে কার্যত ৩ পর্বে ভাগ হয়ে যাবে বিশ্ব ইজতেমা।

আলমি শুরার সাথীদের ইজতেমায় ব্যাপক লোক সমাগম হওয়ার আশংকায় আগে থেকেই অতিরিক্ত ১৭টি খিত্তা বাড়ানো হয়েছিল। বাটা কোম্পানির মাঠ, যমুনা ও হুন্ডা কোম্পানির মাঠে এবং তুরাগ নদীর পশ্চিম পারেও ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের অবস্থানের জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছিল।

ধারণার চেয়ে বেশি লোক সমাগম হওয়ায় এবার অনেক সাথীকে চলাচলের রাস্তায়ও অবস্থান করতে হচ্ছে। ময়দানের আশে পাশে মাদসারা ও মসজিদগুলোতেও অবস্থান করছেন আলমি শুরার সাথীরা। এ অবস্থায় আগামী বছর থেকে শুধু আলমি শুরার সাথীদের ইজতেমাকেই ২ পর্বে আয়োজনের দাবি উঠেছে।

অতিরিক্ত লোক সমাগম হওয়ায় আয়োজকরা ঠিকভাবে পানি ও প্রাকৃতিক প্রয়োজন সম্পন্ন করার ব্যবস্থা সঠিকভাবে দিতে পারছে না। ময়দানসহ সবখানেই পানির চরম হাহাকার পড়ে গেছে। ইজতেমার প্রথম দিন শুক্রবারই এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। এখনো পথে পথে ইজতেমামুখী মানুষ। আখেরি মোনাজাতে অংশগ্রহণে রোববার সকালেও আসবে অনেক মানুষ। সেক্ষেত্রে সুষ্ঠু সুন্দর ব্যবস্থাপনা দিতে ব্যর্থ হবে আয়োজকরা।

পরিস্থিতি বিবেচনায় ইজতেমা ময়দানে আগত আলমি শুরার সাথীদের মনোভাব ও দাবি হলো- আগামী বছর (২০২১) থেকে শুধু আলমি শুরার সাথীদের ইজতেমাই দুই পর্বে অনুষ্ঠিত হোক। তাহলে আলমি শুরার সাথীদের জন্য আসান হবে। পানির সঙ্কট কমে আসবে। অবস্থানের বাড়তি কষ্টটাও আর থাকবে না বলে তারা মনে করেন।

তাবলিগের দায়িত্বশীল মুরুব্বীরা যেন এ ব্যাপারে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণ করেন এবং প্রশাসনের দায়িত্বশীলরা যেন এবিষয়ে মনোযোগ দেন সে ব্যাপারে আলমি শুরার সাথীরা জোরালো দাবি তুলেছেন।

আয়োজক ও প্রশাসন যদি আলমি শুরার সাথীদের এ দাবি মেনে নেন তবে তবে আগামীতে শুধু আলমি শুরার সাথীদের ইজতেমাই হবে দুই পর্বে। সব মিলিয়ে বিশ্ব ইজতেমা ৩ পর্বে অনুষ্ঠিত হবে।

এমএমএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]