ইজতেমা মাঠের যেসব খিত্তায় থাকবেন ৬৪ জেলার সাথীরা

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৫ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০২০

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) বাদ ফজর আম বয়ানের মাধ্যমে শুরু হতে যাচ্ছে তাবলিগ জামাতের আলমি শুরার সাথীদের বিশ্ব ইজতেমা। তবে মঙ্গলবার থেকেই দূর-দুরান্তের তাবলিগের সাথীরা ইজতেমার ময়দানে আসা শুরু করেছেন। এবারে ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার ময়দানে বুধবার বাদ ফজর জেলা জিম্মাদারদের দিক-নির্দেশনামূলক বয়ানে ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে ।

এবারের বিশ্ব ইজতেমায় অন্যান্য বারের চেয়ে বেশি লোক সমাগম হওয়ার সম্ভাবনা থেকে এবার ১৪টি নতুন খিত্তা বাড়ানো হয়েছে। আলমি শুরার ইজতেমা আয়োজক কমিটি ইতিমধ্যে বিভিন্ন জেলার আগত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে তাদের জন্য নির্ধারিত খিত্তায় অবস্থান করার আহ্বান জানিয়েছেন।

৬৪ জেলার সাথীদের খিত্তার অবস্থান ও পরিচিতি
১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া আলমি শুরার সাথীদের ইজতেমায় আগত সাথীরা যে সব খিত্তায় অবস্থান করবেন, বিভাগ অনুযায়ী জেলার তালিকা তুলে ধরা হলো-

>> ঢাকা বিভাগ
> গাজীপুর : খিত্তা-১
> টঙ্গী : খিত্তা-২, ৩ ও ৪
> ঢাকা : খিত্তা-৫-১৯ ও ২৪, ২৫, ২৭, ২৮, ২৯, ৩২
> টাঙ্গাইল : খিত্তা-৩০
> মুন্সিগঞ্জ : খিত্তা-৩৮
> নারায়ণগঞ্জ : খিত্তা-৪২
> ফরিদপুর : খিত্তা-৪৩
> নরসিংদী : খিত্তা-৪৭
> কিশোরগঞ্জ : খিত্তা-৫৫
> গোপালগঞ্জ : খিত্তা-৫৬
> রাজবাড়ি : খিত্তা-৫৮
> শরীয়তপুর : খিত্তা-৬০
> মাদারীপুর : খিত্তা-৬১।

>> চট্টগ্রাম বিভাগ
> চট্টগ্রাম : খিত্তা-৭৫
> কক্সবাজার : খিত্তা-৬৩
> রাঙমাটি : খিত্তা-৬৪ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> খাগড়াছড়ি : খিত্তা-৬৫ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> বান্দরবান : খিত্তা-৬৬
> ফেনী : খিত্তা-৬৭
> নোয়াখালী : খিত্তা-৬৮
> লক্ষ্মীপুর : খিত্তা-৬৯
> চাঁদপুর : খিত্তা-৭০
> বি.বাড়ীয়া : খিত্তা-৭১
> কুমিল্লা : খিত্তা-৭৬।

>> রাজশাহী বিভাগ
> রাজশাহী : খিত্তা-২০
> নওগাঁ : খিত্তা-২১
> নাটোর : খিত্তা-২২
> চাঁপাইনবাবগঞ্জ : খিত্তা-২৩
> সিরাজগঞ্জ : খিত্তা-২৬
> পাবনা : খিত্তা-৮২ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> জয়পুরহাট : খিত্তা-৮৬
> বগুড়া : খিত্তা-৪১।

Khitta

>> খুলনা বিভাগ
> খুলনা : খিত্তা-৭২
> নড়াইল : খিত্তা-৩১
> মাগুরা : খিত্তা-৩৯
> ঝিনাইদহ : খিত্তা-৪০
> যশোর : খিত্তা-৪৪
> সাতক্ষীরা : খিত্তা-৪৫
> বাগেরহাট : খিত্তা-৪৬
> মেহেরপুর : খিত্তা-৫২
> চুয়াডাঙ্গা : খিত্তা-৫৩
> কুষ্টিয়া : খিত্তা-৮৭।

>> সিলেট বিভাগ
> সিলেট : খিত্তা-৬২
> সুনামগঞ্জ : খিত্তা-৭৯ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> হবিগঞ্জ : খিত্তা-৮০ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> মৌলভীবাজার : খিত্তা-৮১ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)

>> বরিশাল বিভাগ
> বরিশাল : খিত্তা-৫৭
> ভোলা : খিত্তা-৪৮
> পটুয়াখালী : খিত্তা-৭৩
> বরগুনা : খিত্তা-৭৪
> পিরোজপুর : খিত্তা-৭৭ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> ঝালকাঠি : খিত্তা-৭৮ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)

>> রংপুর বিভাগ
> রংপুর : খিত্তা-৩৩
> নীলফামারী : খিত্তা-৩৪
> কুড়িগ্রাম : খিত্তা-৩৫
> লালমনিরহাট : খিত্তা-৩৬
> গাইবান্ধা : খিত্তা-৩৭
> ঠাকুরগাঁও : খিত্তা-৮৩ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> পঞ্চগড় : খিত্তা-৮৪ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)
> দিনাজপুর : খিত্তা-৮৫ (তুরাগ নদীর পশ্চিম পাশে)

>> ময়মনসিংহ বিভাগ
> ময়মনসিংহ : খিত্তা-৫০, ৫১
> জামালপুর : খিত্তা-৪৯
> নেত্রকোনা : খিত্তা-৫৪
> শেরপুর : খিত্তা-৫৯

তুরাগ নদীর পশ্চিম পাড় যে সব খিত্তার অবস্থান
উল্লেখ্য যে, এ বছর বিশ্ব ইজতেমায় রাঙামাটি খিত্তা নং ৬৪, খাগড়াছড়ি খিত্তা নং ৬৫, পিরোজপুর খিত্তা নং ৭৭, ঝালকাঠি খিত্তা নং ৭৮, সুনামগঞ্জ খিত্তা নং ৭৯, হবিগঞ্জ খিত্তা নং ৮০, মৌলভীবাজার খিত্তা নং ৮১, পাবনা খিত্তা নং ৮২, ঠাকুরগাঁও খিত্তা ৮৩, পঞ্চগড় খিত্তা ৮৪, দিনাজপুর খিত্তা ৮৫ তুরাগ নদীর পশ্চিমপাড়ে স্থাপন করা হয়েছে।

বিশ্ব ইজতেমায় অতিরিক্ত লোক সমাগম হওয়ার সম্ভাবনায় বিশেষ ব্যবস্থা হিসেবে ৮৮, ৮৯, ৯০, ৯১, ৯২ ও ১৫ (খ) নম্বর খিত্তাগুলো সংরক্ষিত রাখা হয়েছে।

এমএমএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]