কু-ধারণা মারাত্মক অপরাধ


প্রকাশিত: ১১:৪৯ এএম, ০৪ নভেম্বর ২০১৫

ধারনা পোষণ করা মারাত্মক অপরাধ। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কু-ধারণা পোষণকে সবচেয়ে বড় মিথ্যা বলে অভিহিত করেছেন। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামে গুরুত্বপূর্ণ দু’টি হাদিস তুলে ধরা হলো-
Hadith

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘সাবধান, কু-ধারণা পোষণ করা হতে বিরত থাক। কেননা, কু-ধারণাই হচ্ছে সবচেয়ে বড় মিথ্যা। আর কাহারাও বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তি কর না। একে অপরের পতন বা ধ্বংস সাধন করে নিজের উত্থান কামনা কর না। একে অপরের পশ্চাৎ অবলম্বন কর না। একে অপরের প্রতি হিংসা বিদ্বেষ পোষণ কর না। তোমরা সকলেই আল্লাহর বান্দা ভাই-ভাই হইয়া যাও। (বুখারি ও মুসলিম)

হজরত আনাস রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, একদা রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার জনৈক সহধর্মিনীর সঙ্গে ছিলেন। এমন সময় এক ব্যক্তি তাহাদের নিকট দিয়ে অতিক্রম করছিল। তখন রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সে ব্যক্তিটিকে ডেকে বললেন, ওহে! ইনি হচ্ছে আমার ওমুক স্ত্রী। তখন ঐ ব্যক্তি বলল, হে আল্লাহর রাসুল! আমি যদি অপর কারো ব্যাপারে এরূপ মন্দধারণা পোষণ করিতামও আপনার ব্যাপারে তো আমি এরূপ মন্দধারণা পোষণ করিতাম না। তিনি বললেন, ‘শয়তান আদম-সন্তানের রক্তপ্রবাহের শিরায় শিরায় বিচরণ করে। (আদাবুল মুফরাদ)
সুতরাং সমগ্র মুসলিম উম্মাহর উচিত, আল্লাহর ওপর ভরসা করা। আল্লাহকে ভয় করা। কোনো মানুষের প্রতিই কু-ধারণা পোষণ না করা। আল্লাহ তাআলা আমাদের কু-ধারণা পোষণ করা থেকে হিফাজত করুন। আমিন।

জাগো ইসলামে লেখা পাঠাতে ই-মেইল : [email protected]

জাগোনিউজ২৪.কমের সঙ্গে থাকুন। কুরআন-হাদিস মোতাবেক আমলি জিন্দেগি যাপন করে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করুন। আমিন, ছুম্মা আমিন।

এমএমএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]