মুফতি রহিম উল্লাহ কাসেমীর ইন্তেকাল, জানাজায় মানুষের ঢল

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩৩ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২০

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সহকারী মহাসচিব প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন মুফতি রহিম উল্লাহ কাসেমী (৬৯) বুধবার রাত ১১টা ৫০ মিনিটে ঢাকায় ইবনে সিনা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

মুফতি রহিম উল্লাহ কাসেমী মৃত্যুর আগে ফেনীর লালপোল সুলতানিয়া মাদরাসার মুহাদ্দিস হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি ধলিয়া গুণকবাবুপুর দারুল উলুম মুইনুল ইসলাম মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ছিলেন। হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নবনির্বাচিত কমিটিতে এ আলমে দ্বীনকে সহকারী মহাসচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়।

তার মৃত্যুতে হেফাজতে ইসলামের আমির মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী ও মহাসচিব মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীসহ লালপোল সুলতানিয়া মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা ক্বারি মুহাম্মদ কাশেম গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন। তারা মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে তার প্রতিষ্ঠিত মাদরাসা গুণকবাবুপুর মঈনুল ইসলাম মাদরাসায় তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় হাজারো মানুষের ঢল নামে। জানাজা শেষে তাকে নিজ গ্রামেই দাফন করা হয়।

তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী ছাত্র-শিক্ষক রেখে গেছেন।

উল্লেখ্য, গত ৯ মার্চ মুফতি রহিম উল্লাহ কাসেমী হৃদরোগে আক্রান্ত হন। গত মঙ্গলবার নোয়াখালীর হাতিয়ায় মাহফিলের সফরে অসুস্থ হয়ে পড়েন। প্রথমে তাকে মাইজদীর একটি হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার বনশ্রীতে ইয়ামাগাতা ফ্রেন্ডশিপ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিউমোনিয়া আক্রান্ত হওয়ার কারণে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। অবস্থার আরও অবনতি হলে তাকে ঢাকা ইবনে সিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাত ১১টা ৫০ মিনিটে তিনি ইন্তেকাল করেন।

আল্লাহ তাআলা মুফতি রহিম উল্লাহ কাসেমীকে জান্নাতের সর্বোচ্চ মাকাম দান করুন। আমিন।

এমএমএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]