শাহজালালে ম্লান বিমান প্রতিমন্ত্রীর অবদান

রফিক মজুমদার
রফিক মজুমদার রফিক মজুমদার , জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫৮ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯

বর্তমান সরকারের টানা তৃতীয় মেয়াদের প্রথম ১০০ দিনে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ ছিল চোখে পড়ার মতো। মন্ত্রণালয়ের অধীন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সকে দুর্নীতি ও অনিয়মের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রাণপণ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হয়েও পূর্ণ মন্ত্রীর মতো দাপুটে ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক প্রয়াত মাওলানা আসাদ আলীর ছেলে প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী। মন্ত্রীকে সার্বিক সহযোগিতা করছেন সচিব মো. মহিবুল হক।

দুর্নীতির অভিযোগে প্রতিমন্ত্রী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মার্কেটিং বিভাগের দুই কর্মকর্তাকে ওএসডি করেছেন। একই কারণে বিগত দুই সপ্তাহে টিকিট বিক্রিসংশ্লিষ্ট ১০ জনকে বদলি করা হয়েছে। লন্ডন স্টেশনে ফ্রি টিকিটের নামে আড়াই হাজার টিকিট বিক্রি করার দুর্নীতি ধরা পড়েছে দুই সপ্তাহ আগে। এসব বিষয়ে একাধিক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে মন্ত্রণালয় থেকে।

এ বিষয়ে সচিব মহিবুল হক মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) বিকেলে সচিবালয়ের নিজ দফতরে জাগো নিউজকে জানান, বিমান মার্কেটিংয়ের কার্গো শাখায় অচিরেই শুদ্ধি অভিযান শুরু হবে। বিমানের সব সমস্যা সমাধান করা হবে। কোনো অভিযোগ পেলে তদন্ত করা হবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে শাস্তির আওতায় আনা হবে। অপরাধ বড় হলে চাকরিচ্যুত পর্যন্ত করা হবে বলে জানান সচিব।

মন্ত্রণালয়ের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটাতে দীর্ঘ সাড়ে চার বছর বন্ধ থাকার পর আবার চালুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ঢাকা-দিল্লি ফ্লাইট। আগামী ১৬ মে থেকে সপ্তাহে তিনটি করে ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। দীর্ঘদিন চলার পর ২০১৪ সালের ২৩ আগস্ট লোকসানের অজুহাতে এই রুটটি বন্ধ করে দেয়া হয়। দিল্লি রুট চালু করা সরকারের একটি বড় কৃতিত্ব।

বিমানের মার্কেটিং বিভাগের দায়িত্বে থাকা ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এ এম মোসাদ্দিক আহমেদ বলেন, আগামী জুনে ঢাকা থেকে চীনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক নগরী গুয়াংজুতে ফ্লাইট চালু করতে যাচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। দুই দেশের বাণিজ্যিক যোগাযোগ আরও সহজ করতে বিমানের এই উদ্যোগ। গুয়াংজুতেও সপ্তাহে তিনটি বোয়িং ৭৩৭ ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, একসময় বিমানের রুট ছিল ২৮টি। চালু ছিল ২৬টি। কমতে কমতে এখন চালু আছে আঞ্চলিকসহ ১৫টি রুট। অধিকাংশ রুটই খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে। ঢাকা থেকে নিউইয়র্ক, লন্ডন, ম্যানচেস্টার, ফ্রাঙ্কফুর্ট, আমস্টারডাম, রোম, প্যারিস, ব্রাসেলস, টরেন্টো, হংকং, দিল্লিসহ ২৬টি আন্তর্জাতিক রুটে নিয়মিত বিমানের ফ্লাইট চলাচল করত। কিন্তু লোকসানের কারণে নিউইয়র্ক, ম্যানচেস্টার, ফ্রাঙ্কফুর্ট, আমস্টারডাম, রোম, প্যারিস, ব্রাসেলস, টরেন্টো অফিস, নারিতা, নাগোয়া, ত্রিপলি, হংকং, দিল্লি, মুম্বাই রুট পর্যায়ক্রমে বন্ধ হয়ে যায়।

সর্বশেষ বন্ধ হয়েছে ফ্রাঙ্কফুর্ট এবং রোম রুট। ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকা মিলে শুধু ঢাকা-লন্ডন রুট চালু আছে। সম্প্রতি সেখানেও স্লট কমিয়ে দেয়া হয়েছে।

২০১৩ সালে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করেছিল বিমান। কর্তৃপক্ষ জানায়, মালদ্বীপের মালে ও শ্রীলঙ্কার কলম্বো রুটেও ফ্লাইট চালানোর লক্ষ্যে দুটি বোয়িং লিজ নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

তবে বিমান প্রতিমন্ত্রীর সব সাফল্যকে ম্লান করে দিয়েছে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ঘটে যাওয়া একের পর এক কেলেঙ্কারি। মাদক ও স্বর্ণ চোরাকারবারিদের রুট হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে বিমানবন্দর। সংবাদমাধ্যমগুলোতে অসংখ্য প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে বিগত একশ দিনে।

আলোচিত ও সমালোচিত বিমান ছিনতাইচেষ্টার ঘটনাসহ দেশ-বিদেশে বিমানের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে বেশ কিছু ঘটনা। একের পর এক আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বিমানবন্দরে প্রবেশের চেষ্টা করে বেশকিছু ব্যক্তি। চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন পিস্তল নিয়ে শাহজালালে প্রবেশের পর বিষয়টি ব্যাপক আলোচিত হয়। সঙ্গত কারণে বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন উঠেছে। এসব ঘটনা বিমান প্রতিমন্ত্রী ও সচিবকে বিব্রত করেছে।

বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ওই যাত্রী উড়োজাহাজের ভেতরে কীভাবে ঢুকলেন- এই বিষয়টি এখনো পরিষ্কার করতে পারেনি সংশ্লিষ্টরা। সবমিলে বিগত একশ দিনে বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী, সচিব খুব একটা স্বস্তিতে ছিলেন না।

এমআর/এসআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :