ক্লোজ ম্যাচে এক বল বেশি হওয়া অনেক বড় : ফারুক

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:০৭ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০১৭
ক্লোজ ম্যাচে এক বল বেশি হওয়া অনেক বড় : ফারুক

রংপুর রাইার্সের বিপক্ষে কামরুল ইসলাম রাব্বিকে দিয়ে এক ওভারে এক বল বেশি করানোর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে সিলেট সিক্সার্স। ম্যাচ রেফারির কাছে তারা অভিযোগ করেছেন। তাদেও দাবি ওই এক বল বেশি না হলে, ম্যাচের চিত্র ভিন্নও হতে পারতো এবং তারা ম্যাচটি জিততো।

ওই এক বল বেশি করানো নিয়ে যখন চলছে তোলপাড়, তখন সিলেট ফ্র্যাঞ্চাইজি ও টিম ম্যানেজমেন্ট আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান টিটুর এ ভুলকে খুব বড় করে দেখছেন। সিলেট সিক্সার্সের টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার এবং জাতীয় দলের সাবেক প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদও চরম হতাশ।

জাগো নিউজের সাথে এ বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ফারুক আহমেদ বলেন, ‘এটা একটা ক্লোজ ম্যাচ। এখানে একটি বল বেশি হবার অর্থ হিসেব বদলে যাওয়া। ধরেন, আমরা যদি খুলনা টাইটান্সের মত ১১১ রানে অলআউট হতাম, আর আমাদের প্রতিপক্ষের রান যদি এক বা দুই উইকেটে ৮০-৯০ থাকতো তখন ওই ভুলের চড়া মাশুল গুনতে হতো না। কারণ, তার আগেই আমাদের সম্ভাবনা শেষ হয়ে যেতো; কিন্তু ঘটনাটা তো তেমন নয়। আমরা ১৭৩ রানের বড় স্কোর গড়েছি। ম্যাচও পেন্ডুলামের মত দুলছিল। আম্পায়ার যখন ওই এক বল বেশি খেলিয়েছেন, তখনো দু দল প্রায় সমান সমান অবস্থায়। সেখানে অমন একটি ভুল অনেক বড়।’

বল বেশি হওয়ায় রংপুর ইনিংসে একটি রান বেশি যোগ হয়েছে। এক বল বেশি হওয়ায় হিসেব নিকেশ কি পাল্টেছে? এ প্রশ্নের জবাবে ফারুক বলেন, ‘অবশ্যই চালচিত্র অন্যরকম হয়েছে। এক বল বেশি হওয়ায় সিঙ্গেলস নিয়ে স্ট্রাইকে চলে গেছে রবি বোপারা। তিনি তখন ওয়েল সেট। কাজেই পরের ওভারে তিনি স্ট্রাইক পাওয়ায় রংপুরের হিসেব আরও সহজ হয়ে গেছে। সোহেল তানভিরের করা ১৭ নম্বর ওভারের পাঁচ বল স্ট্রাইক পেয়ে বোপারা এক বিশাল ছক্কাসহ তুলে নেন ১২ রান। আর দ্বিতীয় বলে মাশরাফির প্যাডে লেগে আসে একটি সিঙ্গেল। মোট ১৩ রান পায় রংপুর। তাতেই তাদের হিসেবে তুলনামুলক সহজ হয়ে যায়।’

ফারুকের শেষ কথা, মানুষের ভুল হতেই পারে। আম্পায়াররা কখনো কখনো বলের হিসেব কষতে ভুল করেন; কিন্তু সে ভুল শুধরে নেবার সুযোগ আছে। লেগ আম্পায়ারের সাথে, থার্ড কিংবা টিভি আম্পায়ার এবং প্রয়োজনে ওয়াকি-টকিতে স্কোরারের সাথেও কথা বলে নেয়া যেতো; কিন্তু আম্পায়ার পর্যাপ্ত কারিগরি ও পারিপাশ্বিক সুযোগ-সুবিধা নিলেন না। এটাই অনেক বড় হতাশার। আপনার শেষ চার ওভারে যখন ৪০ প্লাস রান দরকার হয়, তখন আম্পায়ারের অমন ভুল সিদ্ধান্ত অনেক বড়। এ ম্যাচ জিতলে টেবিলে আমাদের পজিশনটাও একটু অন্যরকম হতে পারতো। আমাদের পয়েন্ট সাত থেকে ৯-এ চলে যেতো।’

এআরবি/আইএইচএস/আইআই