ভারতের বিপক্ষে যে কৌশলে খেলবে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:২১ পিএম, ১৩ মার্চ ২০১৮

ভারত দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে খেলতে গেছে। নিদাহাস টি-টোয়েন্টি ট্রফিতে সবচেয়ে শক্তিশালী মনে করা হচ্ছিল ঘরের মাঠের শ্রীলঙ্কাকেই। হঠাৎই যেন সব সমীকরণ বদলে দিলো বাংলাদেশ। দাপুটে জয়ে শ্রীলঙ্কাকে নাকাল করে এখন ভারতকেও ভাবনায় ফেলে দিয়েছে টাইগাররা।

বুধবার নিদাহাস ট্রফিতে দ্বিতীয়বারের মতো ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। প্রথম দেখায় খর্বশক্তির এই দলটির কাছে ৬ উইকেটে হেরে যায় টাইগাররা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই স্বরুপে ফিরেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। ফেবারিট শ্রীলঙ্কার ছুড়ে দেয়া ২১৫ রানের বড় লক্ষ্যও ৫ উইকেট হাতে রেখে পেরিয়ে যায় তারা।

এবার সামনে আবারও ভারত। কি হবে টাইগারদের রণকৌশল? শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যে কৌশলে সফল হওয়া গেছে, সেই কৌশল কি ভারতের বিপক্ষেও কাজ করবে? সম্ভবত না। বাংলাদেশও এক কৌশলে দুই দলকে নাকাল করার কথা ভাবছে না। টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ম্যাচের আগের দিন নিজেদের ব্যাকফুটে রেখেই কথা বলেছেন। তবে কৌশল তো মনে মনে একটা থাকছেই!

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে টাইগারদের কৌশল কি হবে? এমন প্রশ্নে টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘সফর শুরুর আগেই আমরা একটা কথা বলেছি, আমাদের নিজেদের ব্র্যান্ডের ক্রিকেটই খেলতে হবে। আসল বিষয় হলো, আমাদের স্মার্ট হতে হবে। আমার মনে হয়, আমাদের এই দলটির সামর্থ্য আছে, আমাদের যথেষ্ট স্মার্ট হতে হবে। স্মার্ট হতে হবে ক্যালকুলেটিভ রিস্ক নেয়ার ক্ষেত্রে।’

বিরাট কোহলি, মহেন্দ্র সিং ধোনিরা না থাকলেও ভারতের এই দলটিতে আছে বেশ কয়েকটি বড় নাম। রোহিত শর্মা, শেখর ধাওয়ান, মনিষ পান্ডে কিংবা দিনেশ কাতির্করা পরীক্ষিত পারফমারই। বিগ হিটে যাদের জুড়ি মেলা ভার। বাংলাদেশ দলে ভারতের মতো পাওয়ার হিটার নেই, সেটি স্বীকার করতে দ্বিধা করলেন না মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে এসব না ভেবে মাঠে সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারাটাই টাইগারদের লক্ষ্য থাকবে, জানিয়েছেন তিনি।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘নির্দিষ্ট বোলারকে মোকাবেলা করার আগে আমাদের নিজেদের মধ্যে কথা বলে নিতে হবে। এই জিনিসগুলো মাঠে প্রয়োগ করতে হবে। খেলতে হবে বাংলাদেশের ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট। কারণ আমার মনে হয়, সম্ভবত আমাদের দলে তাদের মতো পাওয়ার হিটার নেই। এটা সত্য। এটা আমাদের মানতেই হবে। এজন্যই আমাদের স্মার্ট হতে হবে, যাতে নিজেদের সামর্থ্যটা মাঠে ভালোভাবে প্রয়োগ করতে পারি।’

এমএমআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :