ফিক্সিংয়ের অভিযোগে হতবাক, ব্যথিত ম্যাক্সওয়েল

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৮ পিএম, ২৪ জুলাই ২০১৮

আল জাজিরার এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে উঠে এসেছে ফিক্সিংয়ের অনেক অজানা তথ্য। অভিযুক্তদের মধ্যে আছেন অস্ট্রেলিয়ার দুজন ক্রিকেটারও। যদিও তাদের নাম উল্লেখ করা হয়নি। তবে প্রতিবেদনে ওই খেলোয়াড়দের ব্যবহার্য ক্রিকেটীয় উপকরণ দেখিয়ে দেয়ায় একজনকে অনেকটাই সনাক্ত করা গেছে, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। যে অভিযোগ শুনে রীতিমত হতবাক অস্ট্রেলিয়া অলরাউন্ডার, পাচ্ছেন কষ্টও।

আল জাজিরার অনুসন্ধানে এসেছে, ২০১৭ সালে ভারতের বিপক্ষে রাঁচি টেস্টে স্পট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িত ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার একাধিক খেলোয়াড়। ওই টেস্টটিতে দীর্ঘদিন পর দলে সুযোগ পেয়েছিলেন ম্যাক্সওয়েল। প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে দারুণ এক সেঞ্চুরিও করেন তিনি। এমন ম্যাচে কেন স্পট ফিক্সিং করতে যাবেন, সেই প্রশ্নটিও তুলেছেন ম্যাক্সওয়েল।

আল জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি বিস্মিত। একইসঙ্গে আমি কিছুটা কষ্টও পেয়েছি। এমন একটি ম্যাচকে ঘিরে অভিযোগ, যে ম্যাচটিতে আমার সুখের কিছু স্মৃতি রয়েছে। দারুণ সব স্মৃতি। আমার এখনও মনে আছে, ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির পর স্টিভ স্মিথকে জড়িয়ে ধরার পর কেমন অনুভূতি হয়েছিল। এই সব অভিযোগ এনে আমাকে কলঙ্কিত করা হিংসাত্মক। অবশ্যই এসব কিছু সত্য নয়। এটা শতভাগ অন্যায্য, একজনের ক্যারিয়ারের সেরা মূহুর্তকে কলঙ্কিত করা নির্মম ব্যাপার।’

ম্যাক্সওয়েল আরও বলেন, ‘এর চেয়ে খারাপ কিছু তারা করতে পারতো শুধু বিশ্বকাপ (২০১৫) জেতাকে কলঙ্কিত করলে। আমার ক্যারিয়ারের সেরা দুই মূহুর্ত এই দুটো। আমি কি এমন একটি ম্যাচে অনৈতিক কিছু করব, যেখানে আমি দীর্ঘদিন পর টেস্ট দলে ফিরেছি? এটা নষ্ট করার জন্য যদি কিছু করি, তবে সেই কথাটা আসলেই হাস্যকর হবে।’

ওই ডকুমেন্টারি প্রকাশের পরও ম্যাক্সওয়েলকে কখনও তদন্তের মুখোমুখি হতে হয়নি। বরং গত মে মাসে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী সাফ জানিয়ে দেন, ফিক্সিংয়ে অস্ট্রেলিয়ার কোনো খেলোয়াড়ের জড়িত থাকার সুষ্পষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

এমএমআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :