অনেক কঠিন হবে এশিয়া কাপ!

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৫৬ পিএম, ০৯ আগস্ট ২০১৮

২০১২ সালে ফাইনালে উঠে মাত্র ২ রানে হারতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। ২০১৬ সালের ফাইনালেও উঠেছিল টাইগাররা। ফরম্যাট যদিও ছিল ভিন্ন। তবে ভারতের সঙ্গে লড়াই করেছিল টাইগাররা। এবার আরব আমিরতা অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এশিয়া কাপকে আগের আসরগুলোর তুলনায় বেশ কঠিনই মনে করছেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন।

কেন এশিয়া কাপ কঠিন হবে। এর পেছনে তার যুক্তি হলো, ভারত-পাকিস্তান অনেক শক্তিশালী। ফেবারিট দল। শ্রীলঙ্কা আর বাংলাদেশ সমান-সমান। যে কেউ জিততে পারে। সুতরাং, অন্য আসরগুলোর তুলনায় কঠিনই।

আজ হোটেল র্যাডিসন ব্লুতে কোচ স্টিভ রোডসের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এশিয়া কাপ সম্পর্কে নাজমুল হাসান পাপনের কাছে জানতে চাওয়া হলে, তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটে বলা কঠিন। পাকিস্তান এখন সুপার ফর্মে আছে। ভারত তো আগে থেকেই শক্তিশালী। ওখানে বেসিক্যালি মনে করি আমরা ও শ্রীলঙ্কা একই লেভেলের। আগে শ্রীলঙ্কা অনেক ওপরে ছিল, এখন একই। আমরাও জিততে পারি, ওরা জিততে পারি। সেদিক থেকে এবারের এশিয়া কাপ আমর কাছ মনে হচ্ছে কঠিনই হবে। এবং নতুন পরিবেশ। ওখানে কঠিন হবে। তার পরও আমরা সেজন্যই চেষ্টা করছি দলকে আগে পাঠাতে চষ্টা করছি। আলোচনা করছি।’

পাপন মনে করছেন, যত কঠিনই হোক বাংলাদেশও লড়াই করবে। বিশ্বকাপের ক্রিকেটার বাংলাদেশ দলেও রয়েছে। তিনি বলেন, ‘তবে আমাদের বিশ্বমানের প্লেয়ার আছে। মুস্তাফিজ ফর্মে ফিরছে। পাঁচ সিনিয়র আছে। যেকোনো দলকে হারাতে পারি। সবচেয়ে খারাপ হচ্ছে যেন, যে জিনিসটা আমরা বেশি চিন্তিত, আরেকবার যদি সুযোগ আসে, হাতছাড়া যেন না হয়। কয়েকটা সুযোগ আমরা একেবারে শেষ মুহূর্তে গিয়ে হারিয়েছি। সে রকম যেন আর না হয়।’

এশিয়া কাপকে গুরুত্ব দিয়ে নাজমুল হাসান পাপন চান, এই টুর্নামেন্টটার পরই আঙুলে অস্ত্রোপচার করাক সাকিব আল হাসান।

আইএইচএস/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :