বোলিংয়ে শীর্ষে মোস্তাফিজ, ব্যাটিংয়ে ধাওয়ান

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৭ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

কোনো ম্যাচ না হেরে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েই এশিয়া কাপের এবারের আসর শেষ করেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। রেকর্ড সপ্তমবারের মতো এ ট্রফি নিজেদের ঘরে তুলে নিয়েছে তারা।

পুরো টুর্নামেন্টে ভারতের প্রধান শক্তির দিক ছিলো তাদের টপঅর্ডার ব্যাটিং, তেমনিভাবে রানারআপ হওয়া বাংলাদেশের প্রধান শক্তি ছিলো তাদের বোলিং। টুর্নামেন্ট শেষে তাই দুই ডিপার্টমেন্টে সেরাদের তালিকায় আলাদা আলাদাভাবে শীর্ষে রয়েছেন বাংলাদেশ ও ভারতের ক্রিকেটাররা।

টুর্নামেন্টে ৬ ম্যাচ খেলে ১০ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন বাংলাদেশের কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। তার সমান ১০ উইকেট রয়েছে কুলদ্বীপ যাদভ ও রশিদ খানেরও। সাত উইকেট নিয়ে তালিকার ৫ নম্বরে রয়েছেন শেষের দুই ম্যাচ খেলতে না পারা সাকিব আল হাসান।

সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় যথারীতি শীর্ষে শিখর ধাওয়ান। দুই সেঞ্চুরিতে টুর্নামেন্টে তার মোট রান ৩৪২। এক সেঞ্চুরি ও ১ ফিফটিতে ৩০২ রান করে এ তালিকার তিন নম্বরে রয়েছেন বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম।

এশিয়া কাপে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকা

১. শিখর ধাওয়ান (ভারত): রান - ৩৪২, সর্বোচ্চ - ১২৭, গড় - ৬৮.৪০
২. রোহিত শর্মা (ভারত): রান - ৩১৭, সর্বোচ্চ - ১১১*, গড় - ১০৫.৬৬
৩. মুশফিকুর রহিম (বাংলাদেশ): রান - ৩০২, সর্বোচ্চ - ১৪৪, গড় - ৬০.৪০
৪. মোহাম্মদ শাহজাদ (আফগানিস্তান): রান - ২৬৮, সর্বোচ্চ ১২৪, গড় - ৫৩.৬০
৫. হাশমতউল্লাহ শহীদি (আফগানিস্তান): রান - ২৬৩, সর্বোচ্চ ৯৭*, গড় - ৬৫.৭৫

এশিয়া কাপে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকা

১. মোস্তাফিজুর রহমান (বাংলাদেশ): উইকেট - ১০, সেরা বোলিং - ৪/৪৩
২. রশিদ খান (আফগানিস্তান): উইকেট - ১০, সেরা বোলিং - ৩/৪৬
৩. কুলদ্বীপ যাদভ (ভারত): উইকেট - ১০, সেরা বোলিং - ৩/৪৫
৪. জাসপ্রিত বুমরাহ (ভারত): উইকেট - ৮, সেরা বোলিং - ৩/৩৭
৫. সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ): উইকেট - ৭, সেরা বোলিং - ৪/৪২

এশিয়া কাপে সেরা জুটির তালিকা

১. রোহিত শর্মা-শিখর ধাওয়ান (ভারত): ২১০, পাকিস্তানের বিপক্ষে
২. নিজাকাত খান-আংশুমান রাঠ (হংকং): ১৭৪, ভারতের বিপক্ষে
৩. বাবর আজম-ইমাম উল হক (পাকিস্তান): ১৫৪, আফগানিস্তানের বিপক্ষে
৪. মুশফিকুর রহিম-মোহাম্মদ মিঠুন (বাংলাদেশ): ১৪৪, পাকিস্তানের বিপক্ষে
৫. মুশফিকুর রহিম-মোহাম্মদ মিঠুন (বাংলাদেশ): ১৩১, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে

এসএএস/এমএস