জিম্বাবুয়ে সিরিজে ক্রিকেট ম্যানেজার আকরাম, লজিস্টিকে দেবব্রত

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৪০ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৮

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে না গেলেও আরব আমিরাতে এশিয়া কাপে ম্যানেজার ছিলেন খালেদ মাহমুদ সুজন। কিন্তু এবার জিম্বাবুয়ের সাথে দেশের মাটিতে তিনি আর দায়িত্ব পালন করবেন না। কেন করবেন না? জাগো নিউজের সাথে আলাপে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘ব্যক্তিগত কাজ-কর্মে ব্যস্ত আছি। তাই সেভাবে সময় দিতে পারবো না।’

জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সুজন দায়িত্ব নিতে অপারগতা প্রকাশ করায় দেবব্রত পালকে লজিস্টিক ম্যানেজারের দায়িত্ব দেয়া। সে কারণেই আজ সকাল সকাল তার শেরে বাংলায় এসে উপস্থিত হওয়া। কারণ জাতীয় দলের লজিস্টিক ম্যানেজার হওয়া মানেই ক্রিকেটারদের আনুষাঙ্গিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিতের পাশাপাশি প্র্যাকটিস সিডিউল মেইন্টেন, ক্রিকেটারদের প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র সরবরাহ।

আজ রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত বিসিবি আনুষ্ঠানিকভাবে লজিস্টিক ম্যানেজার হিসেবে দেবব্রত পালের নাম ঘোষণা না করলেও আগেই চাওর হয়ে গেছে দেশের মাটিতে প্রথমবারের মত এ দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন দেবব্রত পাল। বলার অপেক্ষা রাখে না, এক সময়ের মিডিয়াম পেসার দেবব্রত খেলোয়াড়ি জীবনে দেশের অন্যতম শীর্ষ ক্রীড়াশক্তি আবাহনীর হয়ে সুনামের সাথে খেলেছেন। দেশের ক্রিকেটারদের ওয়েলফেয়ার সংগঠন ‘কোয়াব’-এর সদস্য সচিব হিসেবে বেশ অনেক দিন দায়িত্ব পালন করাসহ সর্বশেষ বিশ্ব যুব ক্রিকেটে বাংলাদেশ জাতীয় যুব অনূর্ধ-১৯ দলের ম্যানেজারের দায়িত্বও পালন করেছেন।

খালেদ মাহমুদ সুজন দায়িত্ব পালন করবেন না। দেবব্রত পাল লজিস্টিক ম্যানেজার। তাহলে ক্রিকেট ম্যানেজার কে? নাকি ঐ পদে আর কেউ থাকবেন না? হেড কোচ স্টিভ রোডসই সর্বেসর্বা? আজ দুপুর গড়াতেই শেরে বাংলায় চাপা গুঞ্জন।

যেহেতু দেশের মাটিতে খেলা, নির্বাচকরাও দল গঠনে সরাসরি সম্পৃক্ত থাকতে পারবেন। রীতি অনুযায়ী থাকবেনও। তারপরও ভিতরের খবর হলো, দেবব্রত পাল শুধু লজিস্টিক ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করবেন। কিন্তু মূল বা ক্রিকেট ম্যানেজারের দায়িত্বটা বর্তেছে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক এবং দেশের ক্রিকেটের উজ্জ্বল নক্ষত্র আকরাম খানের উপর। জাতীয় দল পরিচালনা, পরিচর্যা ও তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব যে স্ট্যান্ডিং কমিটির ওপর, সেই ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান এবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যানেজারের দায়িত্ব আগলাবেন।

আজ রাতে জাগো নিউজের সাথে আলাপে এ তথ্য নিশ্চিত করে আকরাম খান বলেন, ‘সুজন ব্যস্ততার জন্য পারবে না বলে আমাকে জানিয়েছে।’

আকরাম খান যে ক্রিকেট ম্যানেজার কাম হেড অফ দ্য টিম (শ্যেফ দ্য মিশন) সে খবরটি অবশ্য বোর্ডের উচ্চ পর্যায়ের নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এআরবি/এমএমআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :