শত বছরের সেরা পেসার পাকিস্তানের আব্বাস

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৪৭ এএম, ২০ অক্টোবর ২০১৮

মাত্র কয়েকদিন আগেই ভারতের বিপক্ষে টানা তিন ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে একটা রেকর্ড গড়েছিলেন ক্যারিবীয় পেসার এবং অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। এক পঞ্জিকা বর্ষে মাত্র ১১.৮৭ গড়ে ৩৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি। যা গত একশত বছরের টেস্ট ইতিহাসে সেরা গড়

কিন্তু পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আব্বাস যে রেকর্ড গড়লেন, সেটার মাহাত্ম্য আরও বেশি। টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসকেই যেন ওল্ট পালট করে দিয়েছে। শত বছরের ইতিহাসে সেরা পেসারের তকমাটা এক সিরিজ দিয়েই নিজের নামের পাশে সেঁটে নিলেন পাকিস্তানি এই পেসার।

মাত্র ১০.৫৮ গড়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে নিলেন ১৭ উইকেট। এই গড়টাই আব্বাসকে তুলে দিয়েছে অনন্য উচ্চতায়। শতবছরের সেরার আসনে বসিয়ে দিলো তাকে। আবু ধাবি টেস্টে আব্বাসের আগুনেই তো পুড়ে ছাই হয়ে গেলো অসি ব্যাটিং লাইনআপ। যে কারণে, ৩৭৩ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পাকিস্তান। নিজেদের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে যা পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় জয়।

পেসার মোহাম্মদ আব্বাস এক টেস্ট দিয়েই গড়ে ফেলেছেন অনেকগুলো রেকর্ড। যার মধ্যে অন্যতম এবং সবচেয়ে সেরা হলো, গত ১০০ বছরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এত সেরা গড় নিয়ে আর কেউ বোলিং করতে পারেনি। আব্বাসের আগে ১৯৮৫ সালে ইংল্যান্ডের রিচার্ড এলিসন সর্বোচ্চ গড় নিয়ে বোলিং করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। সেই গড় ছিল ১০.৮৮। উইকেট নিয়েছিলেন ১৭টি।

১৯৮৫ সালে স্যার রিচার্ড হ্যাডলিও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১২.১৫ গড়ে বোলিং করে উইকেট নিয়েছিলেন ৩৩টি। ওই সিরিজটি ছিল ৩ ম্যাচের। এক ইনিংসে ৫২ রান দিয়ে ৯ উইকেট নেয়ার রেকর্ডও ছিল হ্যাডলির।

শুধুমাত্র অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই নয়, টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বশেষ ১০০ বছরে সেরা গড়ধারী বোলার এখন মোহাম্মদ আব্বাস। ৫০ প্লাস উইকেট নেয়া বোলারদের মধ্যে শত বছরে সেরা গড় পাকিস্তানি এই পেসারের। মাত্র ১৫.৬৪ করে। আব্বাস পেছনে ফেলেছেন অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি হার্বাট আয়রনমঙ্গারকে।

যিনি ১৯৭১ সালেই পৃথিবী ছেড়ে পাড়ি জমিয়েছেন পরকালের পথে। ১৭.৯৭ গড়ে ১১২ উইকেট নিয়ে এতদিন সবার ওপরে ছিলেন তিনি। এবার মোহাম্মদ আব্বাস তাকেও পেছনে ফেলে দিয়েছেন। ইংল্যান্ডের ফ্রাঙ্ক টাইসনের গড় ছিল ১৭.০৭ করে। ১৯৫৪ সাল থেকে ১৯৫৯ পর্যন্ত খেলে তিনি উইকেট নিয়েছিলেন ৬১টি। ২০১৫ সালে মারা যান টাইসন।

তবে টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে (প্রায় ১৪২ বছরের) মোহাম্মদ আব্বাস কিন্তু শীর্ষে নন। তিনি রয়েছেন সেরা চারে। ১৮৮৬ থেকে ১৮৯৬ সাল পর্যন্ত খেলা ইংল্যান্ডের পেসার জর্জ লোহম্যানের গড় ছিল ১০.৭৫ করে। অস্ট্রেলিয়ার জন জেমস ফেরিসের গড় ছিল ১২.৭০ করে। ১৮৮৭ থেকে ১৮৯২ পর্যন্ত খেলেছিলেন তিনি। ইংল্যান্ডের পেসার উইলিয়াম বার্নেস ৫১ উইকেট নিয়েছেন ১৫.৫৪ গড়ে। ১৮৮০থেকে খেলেছেন ১৮৯০ পর্যন্ত। তিনি মারা যান ১৮৯৯ সালে।

পাকিস্তানি বোলারদের মধ্যেও রেকর্ড গড়েন মোহাম্মদ আব্বাস। পাকিস্তানের হয়ে কোনো সিরিজে ১৫ কিংবা তার বেশি উইকেট নেয়া বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ গড় একন আব্বাসের। তার আগে সেরা গড় ছিল মোহাম্মদ আসিফের, ১০.৭৬। ২০০৬ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এই রেকর্ড তৈরি করেছিলেন তিনি। ওয়াকার ইউনুসের ছিল ১০.৮৬। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৯৯০-৯১ সালে এই রেকর্ড গড়েন তিনি।

২০০৬ সালের পর এই প্রথম কোনো পাকিস্তানি বোলার এক টেস্টে ১০ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব দেখালো। ২০০৬ সালে সর্বশেষ ক্যান্ডিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১০ উইকেট নিয়েছিলেন মোহাম্মদ আসিফ। গত ১০ বছরে পাকিস্তানের হয়ে সেরা ১০টি বোলিং রেকর্ডের মধ্যে ৫টিই হচ্ছে মোহাম্মদ আব্বাস কিংবা মোহাম্মদ আসিফের।

আইএইচএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :