অবৈধ অ্যাকশনে ধরা ভারতীয় স্পিনার : ১৪ দিনে পরীক্ষা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৫ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০১৯

৪৬ ম্যাচের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে হাত ঘুরিয়েছেন ৯ ম্যাচে, বোলিং করেছেন কেবল ২০.১ ওভার। প্রথম ৮ ম্যাচে বোলিং করে তেমন কোনো প্রশ্নের সম্মুখীন না হলেও, নবম ম্যাচে বল হাতে নিয়েই বিপাকে পড়েছেন ভারতের ডানহাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান কাম অফস্পিনার আম্বাতি রাইডু।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাত্র ২ ওভার বোলিং করেছেন রাইডু। আর তাতেই ধরা পড়েছেন অবৈধ বোলিং অ্যাকশনে। যে কারণে ১৪ দিনের মধ্যে আইসিসির নির্ধারিত ল্যাবে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিতে হবে তাকে।

তবে পরীক্ষার ফলাফল আসার আগপর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলিং করে যেতে পারবেন রাইডু। ম্যাচের দুই আম্পায়ার পল উইলসন এবং মাইকেল গফের দেয়া রিপোর্টের ভিত্তিতেই ম্যাচ রেফারি অ্যান্ডি পাইক্রফট এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আইসিসির নিয়মানুযায়ী কোনো বোলার বোলিং করার সময় যদি ১৫ ডিগ্রির বেশি হাত বাঁকান, তবে সেটিকে আর বোলিং না বলে থ্রোয়িং বলা হয়। রাইডুকে সন্দেহ করা হচ্ছে তেমনই একজন হিসেবে। তবে পরীক্ষার ফলাফল আসার আগে চূড়ান্ত কিছু বলতে রাজি নয় আইসিসি।

তবে রাইডুর বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নের মুখে পড়ায় ভারী চিন্তার মুখে পড়তে হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। কেননা তার বর্তমান সেরা একাদশের প্রথম ছয় ব্যাটসম্যানের মধ্যে কেবল রাইডুই পারেন বোলিং করতে। কিন্তু রাইডু যদি অবৈধ অ্যাকশনের কারণে নিষিদ্ধ হন, তাহলে বিকল্প পরিকল্পনা করতেই হবে ভারতকে।

এসএএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :