জিম লেকারের ১০ উইকেট, ওয়ার্নের বল দ্য সেঞ্চুরির ওল্ড ট্র্যাফোর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৫ পিএম, ২৯ মে ২০১৯

বিশ্বকাপের ফিকশ্চার চূড়ান্ত হওয়ার পর থেকেই আলোচনায় ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ক্রিকেট ভেন্যু। কারণ এখানেই অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপের বহুল আলোচিত ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ। যে ম্যাচকে ঘিরে উপমহাদেশের রাজনীতি পর্যন্ত আবর্তিত হচ্ছে। যে ম্যাচের টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে ছাড়ার এক-দু’দিনের মধ্যেই। ধারণা করা হচ্ছে, পুরো বিশ্বকাপে ওই একটি ম্যাচই মানুষ সবচেয়ে বেশি দেখবে টিভিতে।

এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম ব্যস্ত ভেন্যুগুলোর মধ্যে একটি ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ক্রিকেট গ্রাউন্ড। মোট ৬টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে এখানে। যেগুলোর মধ্যে রয়েছে একটি সেমিফাইনালও। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দিয়েই মূলতঃ এই ভেন্যুতে ক্রিকেট বিশ্বকাপের উদ্বোধন হবে, ১৬ জুন।

এরপর ১৮ জুন এখানে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড এবং আফগানিস্তান। ২২ জুন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে খেলতে নামবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ নিউজিল্যান্ড। ২৭ জুন ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ এখানে অনুষ্ঠিত ৬ জুলাই। মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকা।

ক্রিকেট বিশ্বকাপে একেবারে নতুন ভেন্যু নয় ওল্ড ট্র্যাফোর্ড। ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯- এই চারটি বিশ্বকাপের ম্যাচ আয়োজন করা হয়েছে ওর্ল্ড ট্র্যাফোর্ডের এই ক্রিকেট ভেন্যুতে।

এই মাঠে এর আগে দুটি সেমিফাইনালে খেলতে নেমেছিল স্বাগতিক ইংল্যান্ড। ১৯৭৯ সালে মাত্র ৯ রানের ব্যবধানে তারা হারিয়েছিল নিউজিল্যান্ডকে। তবে ১৯৮৩ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে তারা ভারতের কাছে হেরেছিল ৬ উইকেটের ব্যবধানে।

Old-Traford-1

ল্যাঙ্কাশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের হোম ভেন্যু ওল্ড ট্র্যাফোর্ড। ইংল্যান্ডের সবচেয়ে পুরনো টেস্ট ভেন্যুগুলোর মধ্যে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের অবস্থান দ্বিতীয়। ১৮৮৪ সালে প্রথম এই মাঠে টেস্ট ম্যাচের আয়োজন করা হয়।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ড নির্মাণ করা হয় ১৮৫৭ সালে। তখন থেকে এই মাঠের মালিকানা ছিল ম্যানচেস্টার ক্রিকেট ক্লাবের। ১৮৬৪ সালে এসে ল্যাঙ্কাশায়ারের হোম ভেন্যু হিসেবে পরিণত হয় এই মাঠটি।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের এই মাঠের সাথে এমন একটি ইতিহাস জড়িয়ে, যা অন্য কোনো ভেন্যুর পক্ষে আর অর্জন করা সম্ভব নয়। এই মাঠেই সর্বপ্রথম কোনো এক বোলার টেস্টের এক ইনিংসে পূর্ণ ১০ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব দেখান। ১৯৫৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সারের হয়ে এক ইনিংসে ১০ উইকেট নেন অফব্রেক বোলার জিম লেকার।

শুধু তাই নয়, ওই ম্যাচেই মোট ৯০ রান দিয়ে ১৯ উইকেট দখল করেন এই ইংলিশ বোলার। টেস্ট এবং প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের ইতিহাসে আজও যা রেকর্ড। এম ম্যাচে ১৯ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব এখনও পর্যন্ত কেউ দেখাতে পারেননি।

ওর্ল্ড ট্র্যাফোর্ডের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে আরও একটি ইতিহাস। ১৯৯৩ সালে অ্যাশেজে এই মাঠেই ইংলিশ ব্যাটসম্যান মাইক গ্যাটিংয়ের বিপক্ষে অসি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন ছুঁড়েছিলেন সেই বিক্ষাত ডেলিভারিটি, যেটাকে ক্রিকেট ইতিহাস তার বুকে ঠাঁই দিয়েছে, ‘বল অব দ্য সেঞ্চুরি’ নামে।

২০০৯ সালে এসে এই মাঠে সংস্কার কাজ চালানো হয়। যে কারণে ওর্ল্ড ট্র্যাফোর্ডের দর্শক ধারনক্ষমতা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪ হাজার ৬০০-জনে। সম্প্রতি এই মাঠের একটি এন্ডের নাম করণ করা হয়েছে ইংল্যান্ডের হয়ে টেস্টে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী জেমস অ্যান্ডারসনের নামে।

আইএইচএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :