ভারত ৭ : ০ পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০৭ এএম, ১৭ জুন ২০১৯

না! বিশ্বকাপের ডামাডোলের মাঝে কোনো ফুটবল ম্যাচ খেলেনি ভারত ও পাকিস্তান দল। প্রতিপক্ষের জালে ৭টি গোলও করেনি ভারতীয় ফুটবল। এটি আসলে বিশ্বকাপে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার মুখোমুখি পরিসংখ্যান।

বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের অতীত ইতিহাস কখনোই ছিলো না সুখকর। এ বিশ্বকাপের আগে ক্রিকেটের বিশ্বমঞ্চে ভারতের সঙ্গে ছয়বারের দেখায় কখনোই জিততে পারেনি পাকিস্তান। এর ব্যতিক্রম ঘটেনি এবারও। বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে টানা সপ্তম ম্যাচে হারল ১৯৯২ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচটিতে পাকিস্তানকে পাত্তাই দেয়নি ভারত। আগে ব্যাট করে তারা দাঁড় করায় ৩৩৬ রানের বড় সংগ্রহ। পরে বৃষ্টির কারণে পাকিস্তানের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪০ ওভারে ৩০২ রানের।

যার বিপরীত নির্ধারিত ৪০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২১২ রানের বেশি করতে পারেনি পাকিস্তান। বৃষ্টি আইনে ৮৯ রানের বড় জয়ে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে এখনও পর্যন্ত অপরাজিতই রইলো ভারত।

১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে সর্বপ্রথম পাকিস্তানের মুখোমুখি হয় ভারত। তারপর থেকে ২০০৭ ব্যতীত সব বিশ্বকাপেই একবার হলেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দেশের লড়াই দেখেছে ক্রিকেট বিশ্ব।

২৭ বছর আগের সে বিশ্বকাপে ৪৩ রানের ব্যবধানে জিতেছিল ভারত। পরে ১৯৯৬ এবং ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপেও আগে ব্যাট করেই জয়লাভ করে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এ দুই ম্যাচে তাদের জয়ের ব্যবধান ছিলো যথাক্রমে ৩৯ ও ৪৭ রানের।

২০০৩ সালের বিশ্বকাপে প্রথম ও এখনো পর্যন্ত একমাত্রবারের মতো প্রথমে ব্যাট করে ভারত। সে ম্যাচে শচিন টেন্ডুলকারের ৭৫ বলে ৭৮ রানের ঝড়ো ইনিংসে ভর করে পাকিস্তানের করা ২৭৩ রানের সংগ্রহ ২৬ বল হাতে রেখেই ছুঁয়ে ফেলে ভারত।

পরে ২০০৭ সালের বিশ্বকাপে দুই দলই বাদ পড়ে যায় প্রথম রাউন্ড থেকে। ফলে সেবার দেখা হয়নি তাদের। তবে ২০১১ সালের বিশ্বকাপে ২৯ ও ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ৭৬ রানের ব্যবধানে জয় পায় ভারত। সে হিসেবে রানের বিবেচনায় ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের জয়টিই পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের সবচেয়ে বড় জয়।

এসএএস