মাঠে লঙ্কাকাণ্ড, মরগান বললেন আমি ছিলাম টয়লেটে

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৪২ পিএম, ১২ জুলাই ২০১৯

বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে গতকাল (বৃহস্পতিবার) বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছেছে ইংল্যান্ড। ১৯৯২ সালে শেষবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলেছিল তারা। ২৭ বছর পর এবার ঘরের মাঠে আবার শিরোপা লড়াইয়ের মঞ্চে ইংলিশরা।

এজবাস্টনে অস্ট্রেলিয়া বধের দিনে 'ম্যান অব দ্য ম্যাচ' নির্বাচিত হয়েছেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার ক্রিস ওকস। তবে ম্যাচ জয়ে বড় ভূমিকা ছিল ইংলিশ ওপেনার জেসন রয়েরও।

অস্ট্রেলিয়ার করা ২২৩ রানের লক্ষ্য ৩২.১ ওভারেই পেরিয়ে যাওয়ার পথে, মাত্র ৬৪ বলে ৮৫ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলেন রয়। ছিল সেঞ্চুরির সম্ভাবনাও। তা হয়নি। আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয় এই ওপেনারকে।

ঘটনা ইংল্যান্ডের ইনিংসের ২০তম ওভারের। প্যাট কামিন্সের করা সে ওভারের চতুর্থ ডেলিভারিটি ছিল বাউন্সার। কিন্তু লাইন ঠিক না থাকায় বেরিয়ে যাচ্ছিল লেগসাইড দিয়ে। পুল শট খেলার ব্যর্থ চেষ্টা করেন রয়। বল চলে যায় তার গ্লাভসের পাশ দিয়ে।

কিন্তু কামিন্সের জোরালো আবেদনে সাড়া দিয়ে বসেন আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা। এ সিদ্ধান্ত জানাতে বেশ কিছু সময় নেন তিনি। পরে আউটের জন্য আঙুল তুললে তা পুরোপুরি অবাক করে দেয় রয়কে। সঙ্গে সঙ্গে প্রায় চিৎকার করে উঠেন আম্পায়ারের উদ্দেশ্যে, মুখ দিয়ে উচ্চারণ করেন অশ্রাব্য এক গালি। শুধু তাই নয়, আম্পায়ার আউট দেয়ার পরেও উইকেট ছেড়ে যেতে চাননি রয়।

মাঠে এমন লঙ্কাকাণ্ড হলো, ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগান এই বিষয়ে কি বলবেন? মরগান অবশ্য সতীর্থ কিংবা আম্পায়ার কারও পক্ষেই দাঁড়ালেন না। যেটা বললেন, তার পর আসলে প্রশ্নকর্তাই বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে গিয়েছিলেন। ম্যাচ শেষে ইংলিশ দলপতি বলেন, ‘আমি তখন টয়লেটে ছিলাম।’

এমএইচবি/এমএমআর/পিআর