র‍্যাংকিংয়ে বড় লাফ নাঈম-রাহীর, উন্নতি মুশফিক-মুমিনুলের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩৫ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ইনিংস ও ১০৬ রানের বড় ব্যবধানে জিতেছে বাংলাদেশ। দলের এ উজ্জ্বল পারফরম্যান্সে ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি করেছিলেন মুশফিকুর রহীম (২০৩*) ও মুমিনুল হক (১৩২)। বল হাতে সফল ছিলেন নাঈম হাসান (ম্যাচে ৯ উইকেট), আবু জায়েদ রাহীরা (প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট)।

যার পুরস্কারও তারা পেলেন হাতেনাতে। মঙ্গলবার টেস্ট শেষ হওয়ার পর আজ (বুধবার) প্রকাশিত র‍্যাংকিংয়ে বড়সড় লাফ দিয়েছেন দুই বোলার নাঈম ও রাহী। এছাড়া ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি ঘটেছে মুশফিক, মুমিনুল, নাজমুল শান্তদের।

সবশেষ হালনাগাদকৃত টেস্ট ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ে ৫ ধাপ করে এগিয়েছেন মুশফিক ও মুমিনুল। ক্যারিয়ারের তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানো মুশফিক ২৫ নম্বর স্থান থেকে উঠে এসেছেন ২০ নম্বরে, তার রেটিং ৬৫৫। ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৬৫৮ রেটিং থেকে মাত্র ৩ পয়েন্ট দূরে রয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে ৪৪তম স্থান থেকে মুমিনুল উঠে এসেছেন ৩৯ নম্বরে, তার রেটিং পয়েন্ট ৫৫৬। এছাড়া টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম হাফসেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ৭১ রান করা নাজমুল হোসেন শান্তও এগিয়েছেন ১১ ধাপ। ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ২৮৮ রেটিং নিয়ে তার বর্তমান অবস্থান ১০৪তম।

বোলিং র‍্যাংকিংয়ে বড় লাফ দিয়েছেন নাঈম। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ৪ ও পরের ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে তিনি এগিয়েছেন ২৯ ধাপ। ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৪১০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে অবস্থান করছেন ৩৮ নম্বরে। ডানহাতি পেসার আবু জায়েদ রাহী এগিয়েছেন ১১ ধাপ। তিনিও পেয়েছেন ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ রেটিং, ৩৩১ পয়েন্ট নিয়ে অবস্থান করছেন ৪৬ নম্বরে।

এছাড়া বাংলাদেশের অন্যান্য খেলোয়াড়দের মধ্যে ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ে তামিম ইকবাল ২৭তম (৫৯৮ রেটিং), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৪৯তম (৫১৪), লিটন দাস ৭০ নম্বরে (৪৫০ রেটিং পয়েন্ট) এবং ইমরুল কায়েস অবস্থান করছেন ৯৫ নম্বরে (৩৩৪ রেটিং)।

টেস্ট বোলিং র‍্যাংকিংয়ে নাঈম-রাহীর চেয়েও এগিয়ে রয়েছেন দুই স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। বাঁহাতি তাইজুল ৫৮৫ রেটিং নিয়ে ২৪তম এবং ডানহাতি অফস্পিনার মিরাজ ৫৭০ রেটিং অবস্থান করছেন ২৫ নম্বরে। এছাড়া মোস্তাফিজুর রহমান ৫৮ নম্বরে (২৮২ রেটিং), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৬৮তম (২১৭ রেটিং), রুবেল হোসেন ৮৫তম (১২৯ রেটিং) এবং আলআমিন হোসেন ৮১ রেটিং নিয়ে অবস্থান করছেন ৯৮ নম্বরে।

উল্লেখ্য, আইসিসি কর্তৃক এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ থাকায় তিন ফরম্যাটের সব র‍্যাংকিং থেকেই মুছে ফেলা হয়েছে সাকিব আল হাসানের নাম।

এসএএস/এমএস