ছয় কারণ দেখিয়ে আফগানিস্তানের প্রধান নির্বাচকের পদত্যাগ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৬ পিএম, ৩১ জুলাই ২০২১

শুক্রবার দায়িত্ব থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক ট্রেভর হনস। শনিবার প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করলেন আফগানিস্তানের আসাদুল্লাহ খান। ছয়টি কারণ দেখিয়ে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আফগান প্রধান নির্বাচক।

ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, প্রধান নির্বাচকের সম্মতি ছাড়াই পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন ওয়ানডে সিরিজের স্কোয়াড ঘোষণা করে দেয়ায় পদত্যাগ করেছেন আসাদুল্লাহ খান। এছাড়া বোর্ডে অক্রিকেটীয় মানুষদের অতিরিক্ত দখলদারির কথাও উল্লেখ করেছেন তিনি।

গত ২৪ জুলাই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত জানিয়ে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (এসিবি) চেয়ারম্যান ফারহান ইউসেফজাইকে চিঠি দিয়েছেন আসাদুল্লাহ। এর আগেরদিন পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলতে যাওয়া প্রথম ওয়ানডে সিরিজের দল ঘোষণা করেছিল আফগানরা। আসাদুল্লাহর পদত্যাগের আবেদন গৃহীত হয়েছে গত ২৭ জুলাই।

হাশমতউল্লাহ শহীদিকে অধিনায়ক বানিয়ে ঘোষণা করা ১৭ জনের স্কোয়াডে নতুন মুখই ছিলেন পাঁচ জন- সেদিকুল্লাহ আতাল, শহিদুল্লাহ কামাল, আব্দুল রহমান, ফজলহক ফারুকি এবং নুর আহমেদ। পাশাপাশি ২০১৭ সালে একটি মাত্র ওয়ানডে খেলা পেস বোলিং অলরাউন্ডার করিম জানাতকেও দীর্ঘদিন পর ফেরানো হয়েছে এই ফরম্যাটে।

এই স্কোয়াডে নিজের মতামত না থাকা ও দল সাজানোর ক্ষেত্রে খেলোয়াড়দের ব্যাপারে কোনো জ্ঞান না থাকা অক্রিকেটীয় মানুষদের অতিরিক্ত দখলদারির কারণে পদত্যাগই সঠিক সিদ্ধান্ত মনে করেছেন আসাদুল্লাহ।

বোর্ড চেয়ারম্যানকে দেয়া চিঠিতে যে ছয়টি কারণ উল্লেখ করেছেন আসাদুল্লাহ-

১/ দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে চাহিদা মোতাবেক যথাযথ নির্বাচক কমিটি না দেয়া

২/ প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব পালনের সময় অতিরিক্ত বাধা প্রদান

৩/ খেলোয়াড়দের সম্পর্কে ধারণা না থাকা অক্রিকেটীয় মানুষদের সম্পৃক্ততা

৪/ দল গোছানোর ক্ষেত্রে মতের গুরুত্ব না থাকা

৫/ তিন মাস ধরে বলার পরেও বোর্ড চেয়ারম্যান ইউসেফজাইয়ের সঙ্গে সাক্ষাতের সূচি না পাওয়া

৬/ পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের স্কোয়াড সম্পর্কে অন্ধকারে রাখা

চলতি বছরের মার্চে দীর্ঘ প্রক্রিয়া শেষে আসাদুল্লাহ খানকে প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব দিয়েছিল এসিবি। একজন সাবেক ক্রিকেটার হিসেবে আফগানিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেট সম্পর্কে ধারণা থাকায় এ দায়িত্ব পেয়েছিলেন আসাদুল্লাহ। এর আগে ২০১৯ সালে এসিবির ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি।

এসএএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]