নিজ শহরে আসতেই আগুনে সেঞ্চুরি তামিমের ব্যাটে

শাহাদাৎ আহমেদ সাহাদ
শাহাদাৎ আহমেদ সাহাদ শাহাদাৎ আহমেদ সাহাদ , স্পোর্টস রিপোর্টার চট্টগ্রাম থেকে
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ২৮ জানুয়ারি ২০২২

রান পেয়েছিলেন আসরের প্রথম দুই ম্যাচেও, হাঁকিয়েছিলেন ব্যাক টু ব্যাক ফিফটি। কিন্তু বাহবা পাওয়ার বদলে নিম্নমুখী স্ট্রাইকরেটের কারণে সমালোচনাই সইতে হয়েছিল তামিম ইকবালকে। পরের দুই ম্যাচে রান না পাওয়ায় খানিক চাপও চলে এসেছিল কাঁধে। এরই মাঝে ঘোষণা দিলেন, আগামী ছয় মাস আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলবেন না তিনি।

এই ঘোষণাই যেন নির্ভার করেছে তাকে। আর ব্যাট থেকে বেরিয়ে এসেছে ঝকঝকে এক সেঞ্চুরি। সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে ১৭ চার ও ৪ ছয়ের মারে ১১১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেছেন তামিম। যা তাকে বসিয়েছে ক্রিস গেইল ও এভিন লুইসের পাশে। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে বিপিএলে একাধিক সেঞ্চুরির মালিক হলেন তিনি।

বিপিএলে এতোদিন ধরে একাধিক সেঞ্চুরির কীর্তি ছিল শুধুমাত্র দুই ক্যারিবীয় এভিন লুইস ও ক্রিস গেইলের। দ্য ইউনিভার্স বস বিপিএলে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন পাঁচটি আর লুইসের রয়েছে দুইটি। আজ নিজ শহর চট্টগ্রামে একাধিক সেঞ্চুরির রেকর্ডে দুই ক্যারিবিয়ানের পাশে বসলেন তামিম।

এছাড়া বাংলাদেশিদের মধ্যে টি-টোয়েন্টিতে তিন সেঞ্চুরি নিয়ে আগে থেকেই শীর্ষে ছিলেন তামিম। এবার সেটিকে বাড়িয়ে চার-এ উন্নীত করলেন তামিম। তিনি ছাড়া কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশি ব্যাটারদের মধ্যে একাধিক সেঞ্চুরি রয়েছে শুধুমাত্র নাজমুল হোসেন শান্তর।

রান পেয়েছিলেন আসরের প্রথম দুই ম্যাচেও, হাঁকিয়েছিলেন ব্যাক টু ব্যাক ফিফটি। কিন্তু বাহবা পাওয়ার বদলে নিম্নমুখী স্ট্রাইকরেটের কারণে সমালোচনাই সইতে হয়েছিল তামিম ইকবালকে। পরের দুই ম্যাচে রান না পাওয়ায় খানিক চাপও চলে এসেছিল কাঁধে। এরই মাঝে ঘোষণা দিলেন, আগামী ছয় মাস আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলবেন না তিনি।

এই ঘোষণাই যেন নির্ভার করেছে তাকে। আর ব্যাট থেকে বেরিয়ে এসেছে ঝকঝকে এক সেঞ্চুরি। সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে ১৭ চার ও ৪ ছয়ের মারে ১১১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেছেন তামিম। যা তাকে বসিয়েছে ক্রিস গেইল ও এভিন লুইসের পাশে। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে বিপিএলে একাধিক সেঞ্চুরির মালিক হলেন তিনি।

নিজ শহরে আসতেই আগুনে সেঞ্চুরি তামিমের ব্যাটে

 

বিপিএলে এতোদিন ধরে একাধিক সেঞ্চুরির কীর্তি ছিল শুধুমাত্র দুই ক্যারিবীয় এভিন লুইস ও ক্রিস গেইলের। দ্য ইউনিভার্স বস বিপিএলে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন পাঁচটি আর লুইসের রয়েছে দুইটি। আজ নিজ শহর চট্টগ্রামে একাধিক সেঞ্চুরির রেকর্ডে দুই ক্যারিবিয়ানের পাশে বসলেন তামিম।

এছাড়া বাংলাদেশিদের মধ্যে টি-টোয়েন্টিতে তিন সেঞ্চুরি নিয়ে আগে থেকেই শীর্ষে ছিলেন তামিম। এবার সেটিকে বাড়িয়ে চার-এ উন্নীত করলেন তামিম। তিনি ছাড়া কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশি ব্যাটারদের মধ্যে একাধিক সেঞ্চুরি রয়েছে শুধুমাত্র নাজমুল হোসেন শান্তর।

বিধ্বংসী ইনিংস খেলার পথে ভাগ্যেরও পূর্ণ সহায়তা পেয়েছেন তামিম ইকবাল। তাসকিন আহমেদের করা ইনিংসের প্রথম ওভারে রানের খাতা খোলার আগেই স্লিপে থাকা একমাত্র ফিল্ডার মোহাম্মদ মিঠুনের হাতে ক্যাচ দিয়েও বেঁচে যান ঢাকার ওপেনার। প্রথম দুই ওভার শেষে তার নামের পাশে ছিল মাত্র ৮ বলে ৬ রান।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে তাসকিনের জায়গায় আলাউদ্দিন বাবুকে আক্রমণে আনেন সিলেট অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। আর সেই সুযোগেই উইকেটে থিতু হয়ে যান তামিম। বাবুর সেই ওভারে দুই চার ও এক ছক্কা হাঁকান তিনি। সানজামুল ইসলামের করা পরের ওভারেও একটি করে চার-ছয় হাঁকান তামিম।

তবে তার ইনিংসের সেরা শটটি ছিলো তাসকিনের করা ইনিংসের পঞ্চম ওভারে। সেই ওভারের চতুর্থ বলে উইকেট ছেড়ে বেরিয়ে এসে ইনসাইড আউট শটে এক্সট্রা কভারের ওপর দিয়ে দৃষ্টিনন্দন এক ছক্কা হাঁকান তামিম। পরের ওভারে সিলেট অধিনায়ককে হাঁকান তিন বাউন্ডারি। প্রথম পাওয়ার প্লে থেকেই ঢাকা পেয়ে যায় ৭৪ রান।

তামিম ব্যক্তিগত ফিফটি পূরণ করেন মায়ত ২৮ বলে, সাত চার ও তিনটি ছয়ের মারে। যা এবারের আসরের দ্রুততম। এরপর ফিফটি থেকে সেঞ্চুরিতে পৌঁছতে তামিম নেন ৩৩ বল। মাঝে ব্যক্তিগত ৭১ রানে থাকতে দুইবার জীবন পান তিনি। প্রথমে উইকেটরক্ষক এনামুল হক বিজয় এবং পরে আলাউদ্দিন বাবু শর্ট ফাইন লেগে ছেড়ে দেন ক্যাচ।

সেই আলাউদ্দিন বাবুর করা ইনিংসের ১৭তম ওভারে বাউন্ডারি হাঁকিয়েই সেঞ্চুরি পূরণ করেন তামিম। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরিটি করতে তিনি খেলেন ৬১ বল। যেখানে ছিল ১৬ চার ও তিন ছয়ের মার। সেঞ্চুরি পূরণের পর আরও একটি করে চার-ছয় মারেন তিনি।

তামিমের আগের তিন সেঞ্চুরি ছিল যথাক্রমে ২০১৩ সালের বিজয় দিবস কাপ টি-টোয়েন্টিতে ৬৪ বলে ১৩০, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ২০১৬ সালের আসরে ৬০ বলে ১০৩ এবং ২০১৮ সালের বিপিএলে ৬১ বলে ১৪১ রান। এবার বিপিএলে নিজের দ্বিতীয় ও এবং সবমিলিয়ে ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরি হাঁকালেন তিনি।

 

এসএএস/আইএইচএস/এমকেআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]