আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে কি ভাবছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক?

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৩৭ পিএম, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আন্তর্জাতিক ফুটবলে চারবার আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে খেলা হলেও এই প্রথম বাংলাদেশ দেশটির বিরুদ্ধে মুখোমুখি হচ্ছে বিশ্বকাপের বাছাইয়ে। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর তাজিকিস্তানের দুশানবের রিপাবলিকান সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামে আফগানদের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই কাতার-২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বের মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ। ফুটবলপ্রেমীদের চোখ এখন দুশানবেতে। কেমন শুরু করবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা, সেটাই এখন সবার দেখার আগ্রহ।

এক সময় আফগানিস্তান ছিল ফুটবলে তলানীর দেশ; কিন্তু যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি এখন বাংলাদেশের চেয়ে অনেক এগিয়ে। ফিফা র্যাংকিংয়ে বাংলাদেশ ১৮২, আফগানিস্তান ১৪৯। ২০১৩ সালে দেশটি দক্ষিণ এশিয়ার টুর্নামেন্ট সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতে নিজেদের অবস্থান জানান দিয়েছিল।

গত ৫ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তান বিশ্বকাপ বাছাইয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৬-০ গোলে হেরেছে কাতারের কাছে। শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে তারা নিশ্চয়ই চেষ্টা করবে বাংলাদেশকে হারাতে। কাতারের কাছে আফগানিস্তান ৬ গোল খেলেও বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে দেশটিকে শক্তিশালী হিসেবেই দেখছেন। বলেছেন, ‘আফগানিস্তানকে হারাতে হলে বাংলাদেশকে দুর্দান্ত ফুটবল খেলতে হবে।’

এ ম্যাচটি নিয়ে কি ভাবছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া? তাজিকিস্তান থেকে অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমরা এখানে এসে অনুশীলন করেছি, দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছি। প্রস্তুতি ম্যাচ দুটির ভুলগুলো থেকে আমরা শিক্ষা নিয়ে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে খেলতে নামবো।’

বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা প্রথম ম্যাচ হেরেছি। দ্বিতীয় ম্যাচ ড্র করেছি। দ্বিতীয় ম্যাচের পারফরম্যান্স ঠিক আছে। এখন কোচ দুই ম্যাচ আর অনুশীলন দেখে ঠিক করবেন আমাদের মধ্যে কারা খেলবেন আর কারা খেলবেন না। আমাদের ফরমেশন কি হবে সেটাও কোচ নির্ধারণ করবেন।’

ম্যাচটি নিয়ে নিশ্চয়ই খেলোয়াড়রা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেন? ‘অবশ্যই। আমরা এ ম্যাচ নিয়ে একে অন্যের সঙ্গে আলোচনা করি। কিভাবে আমরা মাঠে ভালো পারফরম্যান্স করে সামনে এগুতে পারি। সবাই খুবই পরিশ্রম করছেন। সবাই ম্যাচে খেলতে চান। আমরা মাঠে একটা দল হয়ে খেলে দেশের জন্য ভালো ফল আনতে চাই’- বলেছেন অধিনায়ক।

আরআই/আইএইচএস/এমএস